রাসেল ভাইপার গুজবআমতলীতে সাপের কামড়ে নারীর মৃত্যু!

প্রথম পাতা » বরগুনা » রাসেল ভাইপার গুজবআমতলীতে সাপের কামড়ে নারীর মৃত্যু!
শুক্রবার ● ২১ জুন ২০২৪


আমতলীতে সাপের কামড়ে নারীর মৃত্যু!

আমতলী (বরগুনা) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

আমতলী উপজেলা আঙ্গুলকাটা গ্রামের আর্শ্বেদ গাজীর স্ত্রী রাজিয়া বেগমের সাপের কামড়ে মৃত্যু নিয়ে ধু¤্রজাল সৃষ্টি হয়েছে। পরিবারের অভিযোগ একটি কুচক্রিমহল রাসেল ভাইপার সাপের কামড়ে রাজিয়া মৃত্যু হয়েছে বলে গুজব ছড়াচ্ছেন। এমন গুজবে কান না দেয়ার আহবান জানিয়েছেন মৃত্যু রাজিয়ার স্বামী আর্শ্বেদ গাজী।
জানাগেছে, আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়নের আঙ্গুলকাটা গ্রামের আর্শ্বেদ গাজীর স্ত্রী রাজিয়া বেগম গত মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৪ টার দিতে ঘুম থেকে জাগে। পরে তিনি বাড়ীর পার্শ্বের একটি খালে ওজু করে এক বালতি পানি নিয়ে ঘরে ফেরেন। ওই পানির বালতি তিনি ঘরের বাড়ান্দায় তাকে রাখতে যান। এ সময় তাকে সাপে কামড় দেয়। কিন্তু ওই সময় তিনি কিছুই বুঝতে পারেন নি। পরে তিনি  ফজরের নামাজ আদায় করেন। নামাজ শেষে তার শরীরে প্রচন্ড ব্যথা অনুভব করেন তিনি। পরে তার ঘরে ঘুমিয়ে থাকা নাতনিকে সাদিয়াকে তিনি ডেকে তুলেন। তার নাতনি সাদিয়া প্রতিবেশীদের ডেকে আনেন। খবর পেয়ে নদীতে মাছ শিকারে থাকা তার স্বামী আর্শ্বেদ গাজী বাড়ীতে চলে আসেন। তিনি এসে স্থানীয় দেলোয়ার ওঝাকে ডেকে আনেন। ততক্ষনে আড়াই ঘন্টা চলে যায়। ওঝা দেলোয়ার ঘন্টাখানেক চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হন। প্রায় তিন ঘন্টা পরে রাজিয়া গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে যায় বলে জানান স্বামী আর্শ্বেদ গাজী। পরে তাকে স্বজনরা পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। ওই হাসপাতালের চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষনা করেন। ওই হাসপাতাল থেকে বাড়ীতে এনে তার দাফনের জন্য গোসলের ব্যবস্থা করেন। এমন সময় কয়েকজন নারী বলেন রাজিয়া মারা যায়নি। তিনি চোখে পলক দিয়েছেন। এমন খবরে এলাকার মানুষ হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলেন। পরে স্বামী আর্শ্বেদ গাজী স্ত্রী রাজিয়াকে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে। ওই হাসপাতালের চিকিৎসক মোঃ মনিরুজ্জামান তাকে মৃত্যু ঘোষনা করেছেন। এদিকে সাপে কামড়ে নারীর মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে একটি মহল গুজব ছড়াচ্ছে রাসেলের ভাইপার সাপের কামড়ে রাজিয়া মারা গেছেন। প্রকৃত পক্ষে কোন প্রজাতির সাপের কামড়ে রাজিয়া মারা গেছে তা পরিবারের কেউ বলতে পারেন না। অপর দিকে ওই নারীর মৃত্যুর একদিন পরে স্থানীয়রা তার বাড়ীতে যান। এ সময় তারা দেখতে পান ঘরের বাড়ান্দায় গর্তের ভিতরে একটি কালো ও চিকন সাপ প্রবেশ করছে। তাৎক্ষনিক ওই সাপ ধরতে ওঝা জাহাঙ্গির  ও রাজাকে ডাকা হয় কিন্তু তারা গর্ত খুড়ে সাপ পাননি শুক্রবার সরেজমিনে গিয়ে এ তথ্য জানাগেছে।
সাপের কামড়ে মৃত্যু রাজিয়ার স্বামী আর্শ্বেদ গাজী বলেন, আমার স্ত্রী সাপে কামড়ে মারা গেছেন। কিন্তু কোন প্রজাতির সাপে কামড় দিয়েছে তা বলতে পারিনা। নেটে গুজব শুনতে পাচ্ছি যে রাসেলের ভাইপার সাপে আমার স্ত্রীকে কামড় দিয়েছে। তিনি আরো বলেন, পরের দিন আমার ঘরে একটি সাপ দেখেছি তা চিকন ও  কালো। ওঝা এনে ওই গর্ত খুড়েছি কিন্তু সাপ ধরতে পারেনি। গুজবে কান না দেয়ার জন্য তিনি সকলকে আহবান জানান।
প্রতিবেশী আব্দুস সোবাহান মুন্সি বলেন, ভাবী রাজিয়া বেগমের মৃত্যুর পরের দিন আমিসহ বেশ কয়েকজন ওই বাড়ীতে যাই। বসে কথা বলতেছি এমন সময় ঘরের বাড়ান্দায় চিকন ও কালো একটি সাপ গর্তে ঢুকতে দেখেছি। ওই সাপ দেখে আমরা হতবম্ভ হয়ে যাই।
স্থানীয় মোয়াজ্জেম হাওলাদার  মাসুম কাজী, রিপন মিয়া, ফাহিম ও মাসুম হাওলাদার বলেন, সাপে কামড়ে নারীর মৃত্যু হয়েছে এটা সঠিক কিন্তু কোন প্রজাতির সাপে কামড় দিয়েছে তা কেউ দেখেনি। কিন্তু একটি মহল ওই নারীকে রাসেলের ভাইপার সাপে কামড় দিয়েছে বলে গুজব ছড়াচ্ছেন।
আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ চিন্ময় হাওলাদার বলেন, ওই নারীকে সাপে কামড় দেয়ার কয়েক ঘন্টা পরে হাসপাতালে আনা হয়েছে। তাকে বাড়ীতে বসে ওঝা এনে ঝাড় ফুঁক দিয়েছেন ফলে বেশ সময় কেটে গেছে। তাই যথা সময়ে চিকিৎসা না দিতে পারায় তার মৃত্যু হয়।
আমতলী থানার ওসি কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, যারা গুজব ছড়াচ্ছে উপযুক্ত প্রমাণ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

 

এমএইচকে/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২২:৩৩:৩০ ● ৭২ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ