দুমকিতে ঈদের রাতে আগুনে পুড়ে বসতঘর ছাই!

প্রথম পাতা » পটুয়াখালী » দুমকিতে ঈদের রাতে আগুনে পুড়ে বসতঘর ছাই!
মঙ্গলবার ● ১৮ জুন ২০২৪


দুমকিতে ঈদের রাতে আগুনে পুড়ে বসতঘর ছাই!

দুমকি(পটুয়াখালী) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

ঈদের রাতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে নিঃস্ব হয়েছে পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলার শ্রীরামপুর ইউনিয়নের রাজাখালি গ্রামের একটি পরিবার। সব হারিয়ে পরিবারটির ঈদের আনন্দ এখন বিষাদে পরিণত হয়েছে। গভীর রাতে রান্নাঘর থেকে আগুনের সূত্রপাত বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। সাবেক ইউপি সদস্য বাচ্চু হাওলাদারদের বাড়িতে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিসের ফাইটাররা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।  খবর পেয়ে দুমকি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন মাহমুদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়,  মরহুম এসকান্দার হাওলাদারের ওই বাড়িতে তার ছেলে মাসুদ হাওলাদার বসবাস করে আসছিল। ঈদ উপলক্ষে অন্যান্য ছেলেরাও পরিবার-পরিজন নিয়ে বাড়িতে আসে। রাতে বাড়ির লোকজন ও প্রতিবেশীদের খাওয়া শেষে একটার পরে ঘুমাতে যায় ঘরের লোকজন। রাত সাড়ে তিনটায় আগুনের ধোঁয়ার গন্ধে ঘুম ভেঙ্গে যায় মাসুদ হাওলাদারের স্ত্রী তাসলিমা বেগমের।
তাসলিমা বেগম জানান,  ধোয়ার গন্ধে ঘুম ভেঙে গেলে চিৎকার করে সকলকে উঠায় এবং রান্নাঘর দাউ দাউ করে জ্বলতে দেখেন। এ সময় দ্রুত সবাই এক কাপড়ে ঘর থেকে বের হয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে।  ততক্ষণে আগুন বসত ঘরে ছড়িয়ে পড়ে এবং গ্যাস সিলিন্ডারের কারণে আগুনের তীব্রতা বাড়ে এবং সম্পূর্ণ ঘর পুড়ে যায়।
পরিবারের মেজো ছেলে সাবেক ইউপি সদস্য বাচ্চু হাওলাদার জানান,  রাতে খাবার শেষে বাড়ি থেকে দুমকি উপজেলা সদরের বাসায় ফেরেন।  ভোররাতে আগুনের খবর পেয়ে বাড়ি এসে দেখতে পান সবকিছু পুড়ে গেছে।   মালামাল ছাড়াও ঘরে থাকা ১৫ মন মুগডাল, ১০ মন চালও পুড়ে যায়।
শ্রীরামপুরের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মৃধা জানান, ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে পরিবারটি একেবারে নিঃস্ব হয়ে গেছে।
ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দুমকির উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন মাহমুদ বলেন, আমরা যা ধারণা করেছিলাম এখানে আগুনের ভয়াবহতা তার চেয়েও বেশি ছিল। পরিবারটি একেবারে নিঃস্ব হয়ে গেছে। আমাদের পক্ষ থেকে যতটুকু সহযোগিতা সম্ভব সর্বাত্মক দেয়ার চেষ্টা করবো।
এদিকে বিকেলে সাড়ে ৫টায় স্থানীয় সাংসদ এবিএম রুহুল আমীন হাওলাদার আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িটি পরিদর্শন করেছেন।

এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২০:২৪:২৪ ● ৩৮ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ