আমতলীতে একমাসের শিশুর মরদেহ উদ্ধার

প্রথম পাতা » বরগুনা » আমতলীতে একমাসের শিশুর মরদেহ উদ্ধার
মঙ্গলবার ● ৩ আগস্ট ২০২১


আমতলীতে একমাসের শিশুর মরদেহ উদ্ধার

আমতলী (বরগুনা) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

এক মাস পাঁচ দিনের শিশু কন্যা সারামনির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় শিশুকন্যার বাবা শাহ আলম বাদী হয়ে আমতলী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনা ঘটেছে উপজেলার পুর্ব সোনাখালী গ্রামে সোমবার রাতে।
জানাগেছে, উপজেলার পুর্ব সোনাখালী গ্রামের শাহ আলম ও রোজিনা দম্পতির গত ২৮ জুন সারামনি নামের এক শিশু কন্যার সন্তান জন্ম হয়। সোমবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে ১৯ মাসের শিশু কন্যা শাকিলা ও ৩৫ দিনের শিশু কন্যা সারামনিকে ঘরে রেখে মা রোজিনা বেগম পায়খানায় যান। রোজিনা পায়খানা থেকে এসে শিশু সারামনিকে ঘরে খুঁজে পায়নি। শিশুটিকে না পেয়ে মা রোজিনা বেগম ডাকচিৎকার দেন। তার ডাক চিৎকারে প্রতিবেশী ও স্বজনরা এসে শিশুটি খুঁজতে থাকে। ঘন্টাখানেক পরে শিশু কন্যার মরদেহ ঘরের পাশে একটি ঢোবায় স্বজনরা দেখতে পায়। পরে স্থানীয়রা শিশুটির মরদেহ ঢোবা থেকে তুলে পুলিশে খবর দেয়। মঙ্গলবার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে প্রেরন করেছে। এ ঘটনায় শিশুর বাবা শাহ আলম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামী করে আমতলী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
শিশুর মা রোজিনা রেগম কান্নাজনিত কন্ঠে বলেন, মোরা এইরহম সর্বনাশ কে হরলো?। মোর ময়নারে মোর  কোলে ফিরাইয়্যা দে।
শিশুর বাবা শাহ আলম বলেন, আমার স্ত্রী শিশু কন্যা শাকিলা ও সারামনিকে ঘরে রেখে পায়খানায় যায়। ওই সময় ঘরে আমার প্যারালাইষ্ট মা ছাড়া কেউ ছিল না। আমি ও আমার বাবা দিন মজুরীর কাছে চরমোন্তাজ ছিলাম। ফাঁকা ঘরে কেউ আমার শিশু কন্যাকে তুলে নিয়ে ঢোবায় ফেলে দিয়েছে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।
আমতলী থানার ওসি মোঃ শাহ আলম হাওলাদার বলেন, শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় শিশু কন্যার বাবা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। তিনি আরো বলেন, তদন্ত করে এ ঘটনার সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে।

এমএইচকে/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২২:১৪:৫৮ ● ৯৩ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ