আমতলীতে গরম তেলে ঝলসে গেল শিশু প্রান্ত

প্রথম পাতা » বরগুনা » আমতলীতে গরম তেলে ঝলসে গেল শিশু প্রান্ত
রবিবার ● ১৮ জুলাই ২০২১


আমতলীতে গরম তেলে ঝলসে গেল শিশু প্রান্ত

আমতলী (বরগুনা) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

বরগুনার  আমতলী পৌর শহরের কেয়া রেষ্টুরেন্টের সড়কে রাখা কড়াইয়ের গরম তেলে ঝলসে গেছে ১২বছরের শিশু প্রান্ত। গুরুতর অবস্থায় শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনা ঘটেছে শনিবার রাত নয়টার দিকে।
জানাগেছে, পৌর শহরের ওয়াবদা সড়কের সুমান্ত মজুমদারের শিশু পুত্র প্রান্ত মজুমদার সদর রোডের কেয়া রেষ্টুরেন্টের পাশ দিয়ে হেঁটে বাসায় যাচ্ছিল। এমন মুহুর্তে ওই রেষ্টুরেন্টের সড়কে রাখা উতপ্ত তেলের কড়াই শিশু প্রান্তের হাতে বাঁধে। ওই কড়াই উল্টে গরম তেলে শিশু প্রান্তর শরীর ঝলসে যায়। দ্রুত  স্বজনরা উদ্ধার করে শিশুকে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। ওই হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক সুমন খন্দকার তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করেছে। ওই হাসপাতালের চিকিৎসকরা শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে প্রেরন করেন। রবিবার শিশুটিকে ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানান শিশুটির বাবা সুমান্ত মজুমদার।  শিশুটির বাবা সুমান্ত মজুমদার বলেন, সড়কে রাখা গরম কড়াইয়ের তেল গায়ে পড়ে প্রান্তের শরীরের অধিকাংশ স্থানে পুড়ে গেছে। কেয়া রেষ্টুরেন্টের মালিক মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, গরম তেলের কড়াইতে শিশু প্রান্তের হাত লেগে কড়াই উল্টে যায়। ওই গরম তেলে শিশু শরীর পুড়ে গেছে।
আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক সুমন খন্দকার বলেন, শিশুটির শরীরের ৫০% ঝলসে গেছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আমতলী থানার ওসি মোঃ শাহ আলম হাওলাদার বলেন. খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এমএইচকে/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২১:১৭:৩১ ● ৯৪ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ