গলাচিপায় পুলিশ বাঁচালো শালিকের প্রাণ!

প্রথম পাতা » পটুয়াখালী » গলাচিপায় পুলিশ বাঁচালো শালিকের প্রাণ!
রবিবার ● ১৮ জুলাই ২০২১


গলাচিপায় পুলিশ বাঁচালো শালিকের প্রাণ!

গলাচিপা (পটুয়াখালী) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন করায় রক্ষা পেল বিদ্যুতের তারে ঝুলন্ত এক শালিক পাখি। এ সময় পাখিটিকে উদ্ধার করে পল্লী বিদ্যুৎ বিভাগ। তাদেরকে সহযোগিতায় গলাচিপা থানা পুলিশ এগিয়ে আসে। ঘটনাটি ঘটেছে পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা পৌরসভার লঞ্চঘাট এলাকায় শনিবার শেষ বেলায়। পাখি প্রেমিক পৌর এলাকার যুবক মাইদুল হক মিকু জরুরি সেবায় ফোন দেয়ার কারণেই রক্ষা পেল পাখিটি। শালিকটি উদ্ধারের সময় শতশত উৎসুক জনতা ভিড় করে। এতে প্রশংসায় ভাসছে পাখি প্রেমিক মিকুসহ বিদ্যুৎ ও পুলিশ বিভাগ।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পাখি প্রেমিক জানায়, লঞ্চঘাট এলাকায় মাহাবুব মিয়ার চায়ের দোকানের সামনে বৈদ্যুতিক খুঁটির তারের উপর বসে শালিক পাখিটি। পাখিটির পায়ে সুতা বাধা থাকায় সুতাটি জাম্পারের সাথে আটকে যায়। প্রায় ২৪ ঘণ্টা ধরে আপ্রাণ চেষ্টা করেও রক্ষা পায়নি পাখিটি। শনিবার বিকেল ৫টার সময় ওই এলাকায় ঘুরতে গিয়ে পাখি আটকে পড়ার বিষয়টি মিকুর নজরে আসে। এটা দেখে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন করে সহযোগিতা চায়। ৯৯৯ থেকে মিকুর সাথে দশমিনা ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তার সাথে সংযোগ করে দেয়া হয়। এরপর জরুরি সেবা থেকে গলাচিপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস এম শওকত আনোয়ার ইসলামকেও বিষয়টি জানানো হয়। তাৎক্ষনিক তিনি গুরুত্ব সহকারে পল্লী বিদ্যুতের গলাচিপা জোনাল অফিসের ডিজিএম ইঞ্জিনিয়ার মো: মাইনুদ্দিনকে জানায় এবং ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠায়। ডিজিএম জানতে পেরেই আলোর গেরিলা দলের সদস্য মো: রাজু আহম্মেদ ও মো: শরিফ আহম্মেদকে ঘটনাস্থলে পাঠিয়ে বিকেল সোয়া ৬টায় পাখিটিকে জীবিত উদ্ধার করে। এরই মধ্যে ২৪ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে দশমিনা ফায়ার সার্ভিসের দল ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। উদ্ধার শেষে পাখিটিকে গলাচিপা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার কাছে নিয়ে চিকিৎসা প্রদান করা হয়। পাখিটির ডান পা ভেঙ্গে গেছে বলে চিকিৎসক জানায়। পাখিটির শারীরিক অবস্থা খারাপ থাকায় চিকিৎসা শেষে সুস্থতার জন্য পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের রেজিস্ট্রি অফিস রোড এলাকার স্থানীয় পাখি ব্যবসায়ী মো: ফরহাদ হোসেনের কাছে রাখা হয়েছে।
এ ব্যাপারে পাখি ব্যবসায়ী মো: ফরহাদ হোসেন জানান, পাখির ডান পায়ে ব্যান্ডেজ করা হয়েছে। পাখিটির পরিপূর্ণ সুস্থতার জন্য আমার কাছে রাখা হয়েছে। বর্তমানে আমার পাখিগুলোর সাথে রয়েছে। আমি নিয়মিত পরিচর্যা করছি।
পল্লী বিদ্যুতের গলাচিপা জোনাল অফিসের ডিজিএম ইঞ্জিনিয়ার মো: মাইনুদ্দিন জানান, শালিক পাখিটি উদ্ধার করতে পেরে আমরা খুব আনন্দিত হয়েছি। পাখিটি পরিপূর্ণ সুস্থ হলে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার উপস্থিতিতে অবমুক্ত করা হবে। এ ধরণের মানবতার সেবায় সবার এগিয়ে আসা উচিত।


এসডি/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২১:১১:১১ ● ৭৬৯ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ