গলাচিপায় পরকীয়ার জেরে স্বামীকে হত্যার চেষ্টা!

প্রথম পাতা » পটুয়াখালী » গলাচিপায় পরকীয়ার জেরে স্বামীকে হত্যার চেষ্টা!
সোমবার ● ৭ জুন ২০২১


গলাচিপায় পরকীয়ার জেরে স্বামীকে হত্যার চেষ্টা!

গলাচিপা (পটুয়াখালী) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

পটুয়াখালীর গলাচিপায় পরকীয়ার জেরে প্রেমিকের পরামর্শে স্বামীকে মোবাইল ফোনে শ^শুর বাড়িতে ডেকে নিয়ে হত্যা চেষ্টা চালিয়েছে এক গৃহবধু। তার নাম সুবর্না বেগম (২২)। সোমবার (৩১ মে) রাত অনুমান ৯টার দিকে উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নের বড় গাবুয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সোমবার (৭ জুন) শাকিল ফকির (২৮) কে গলাচিপা বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত জেল হাজতে প্রেরণ করেন। গৃহবধু সুবর্না বেগম গোলখালী ইউনিয়নের বড় গাবুয়া গ্রামের মো. ফারুক হাওলাদারের মেয়ে।
স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, একই গ্রামের মো. লুৎফর রহমানের ছেলে অনিক চৌকিদারের সাথে সুবর্না বেগমের প্রায় ৩বছর আগে ইসলামি শরিয়ত মোতাবেক রেজিস্ট্রি কাবিনমূলে বিবাহ হয়। অনিক চৌকিদার লক্ষাধিক টাকার স্বর্ণালঙ্কার ও অতিথি আপ্যায়ন করিয়ে সুবর্না বেগমকে তার বাড়িতে তুলিয়া নেয়। অনিকের ঔরষে সুবর্না বেগমের ১৪ মাসের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। তার নাম আয়শী। বিয়ের কয়েক মাসের মাথায় সুবর্না বেগমের ফুফাত ভাই শাকিল ফকিরের সঙ্গে তার পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে ওঠে। শাকিলের পরামর্শে সোমবার (৩১ মে) রাত অনুমান ৯ টার দিকে স্বামী অনিক চৌকিদারকে হত্যার পরিকল্পনা করে সুবর্না। ওই দিন রাতেই কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সুবর্না তার সহযোগীদের নিয়ে অনিককে হাতে থাকা চাইনিজ কুড়াল দিয়ে এলোপাথারীভাবে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। অনিক তখন যন্ত্রনায় ছটফট করে এবং পানি চাইলেও পানি না দিয়ে বরং মারতে থাকে। অনিক চিৎকার দিলে এলাকাবাসী এসে পড়লে মারধরকারীরা পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে অনিকের বাবা লুৎফর রহমান বলেন, হত্যার উদ্দেশ্যে আমার ছেলে মুঠোফোনে ডেকে নিয়ে কান, মাথা ও ঘাড়ে কোপ দেয়। অনেকগুলো সেলাই লেগেছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য আমার ছেলেকে বরিশাল শেরে-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছি। আমি এর বিচার চাই। এ বিষয়ে অনিকের মা মোসাঃ তুলি বেগম বাদী হয়ে গলাচিপা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এসডি/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ১৯:৪৬:৩৯ ● ১৬০ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ