কলাপাড়ায় প্রচন্ড দাবদাহে অসহনীয় পরিবেশ

প্রথম পাতা » আবহাওয়া » কলাপাড়ায় প্রচন্ড দাবদাহে অসহনীয় পরিবেশ
বুধবার ● ২২ মে ২০১৯


কলাপাড়ায় প্রচন্ড দাবদাহে অসহনীয় পরিবেশ

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) সাগরকন্যা অফিস॥

প্রচন্ড দাবদাহে জনজীবনে এক অসনীয় পরিবেশ বিরাজ করছে। সকাল ১০টার পরেই মাঠঘাট, রাস্তা সব ফাঁকা হয়ে যায়। মানুষ নিতান্ত দায় ঠেকে কেউ রাস্তায় নামছে। অধিকাংশ মানুষ প্রচন্ড গরমে বাসায় থাকছে। ভ্যাপসা গরম এখন অসহনীয় পর্যায় পৌছেছে।
প্রচন্ড গরমে রোজাদার মানুষ পড়েছে কষ্টকর অবস্থায়। দিনে পারছে না স্বস্তিতে কোন কাজকর্ম করতে। তারাবিহ নামাজের সময় মুসল্লীরা ছুটছেন এয়ার কন্ডিশন লাগানো মসজিদে। যেন উপকূলের সাগরপারের জনপদ কলাপাড়ার মানুষের চরম অস্বস্তিকর পরিবেশে একেকটি মুহুর্ত কাটছে। গরমের প্রভাবে জ¦র-ডায়রিয়াসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। ৫০ শয্যার হাসপাতালে ভর্তি থাকছে কমপক্ষে এক শ’ থেকে দেড় শ’ রোগী। এ দৃশ্য নিত্যকার। কুয়াকাটায় নেই কোন পর্যটক দর্শনার্থী। ব্যবসা-বাণিজ্যে বিরাজ করছে স্থবিরতা। গ্রামের কৃষকসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ গভীর রাত পর্যন্ত গাছতলা, পুকুরপাড়ে অবস্থান নেয়।
কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য প্রশাসক ডাঃ চিন্ময় হাওলাদার জানান, অসহনীয় দাবদাহে মানুষকে অকারণে ঘর থেকে বের না হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন। বেশি বেশি নিরাপদ পানি খেতে হবে। পানিবাহিত রোগের প্রাদুর্ভাব বেড়ে গেছে বলে তিনি জানান। কলাপাড়া রাডার স্টেশনের দেয়া তথ্যানুসারে এখানে মঙ্গলবারে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি। আর সর্বনি¤œ তাপমাত্রা ছিল ২৭ দশমিক ৫। তবে আদ্রতা বেশি থাকায় মানুষের কষ্ট হচ্ছে। নীলগঞ্জের বহু সবজি চাষী জানান, ছোট-বড় অসংখ্য খাল শুকিয়ে ফেটে চৌচির হয়ে গেছে। সেচের পানি নেই। গ্রীস্মকালীন সবজি আবাদে বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। কৃষক সুলতান গাজীর ভাষ্য, ‘প্রচন্ড গরমে কৃষিকাম করতে পারি না। ক্ষেত-খামার আউলাইয়া রইছে।’ কবে নাগাদ এক পশলা বৃষ্টিতে স্বস্তির পরশ ফিরে আসবে এই জনপদে এমন কোন সঠিক আভাস দিতে পারেনি আবহাওয়া অফিস। ফলে মানুষের জীবনে পার হচ্ছে এক অসহনীয় সময়কাল।

এমইউএম/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ১৮:০০:৩৩ ● ৩৩২ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ