নাজিরপুরে আ’লীগের সমাবেশে প্রশাসনের কঠোর সমালোচনা!

প্রথম পাতা » পিরোজপুর » নাজিরপুরে আ’লীগের সমাবেশে প্রশাসনের কঠোর সমালোচনা!
সোমবার ● ১ নভেম্বর ২০২১


নাজিরপুরে আ’লীগের সমাবেশে প্রশাসনের কঠোর সমালোচনা!

পিরোজপুর সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

পিরোজপুরের নাজিরপুরে আ’লীগের একটি সমাবেশে প্রশাসনকে দেখিয়ে দেওয়ার হুমকী দিলেন জেলা আ’লীগের সভাপতি একেএমএ আউয়াল।
রবিবার (৩১ অক্টোবর) বিকালে উপজেলার স্বাধীনতা মঞ্চে অনুষ্ঠিত ওই সমাবেশে   প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য কালে তিনি (আউয়াল) নাজিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও), থানার অফিসার ইন চার্জ (ওসি) ও সহকারী কমিশনার (ভুমি)-এর  উদ্দেশ্যে হুমকী দিয়ে তিনি বলেন, ‘আওয়ামীলীগের দলীয় সরকার, সেই দলের আমি জেলা সভাপতি। আমার কথা শুনবেন না, শুনবেন খুনীদের কথা। সেটা শোনা যাবে না। কার বাসায় যান, কখন যান, কিসের জন্য যান , কি নির্দেশনা চান? কেউ ঠেকাতে পারবে না। আর যদি ঠেকাতে চান, থাকেন সময় কালে কথা বলবে’। এ সময় তিনি আরো বলেন,‘ আপনাদের যারা গুরু তারা কিন্তু আমাকে স্যার বলে। আমি ডকুমেন্ট তৈরী করে ফেলেছি। আপনারা কে কোথায় কি বলেন, কার নামে কাজ নিয়েছেন। কে কাজ তৈরী করে, আমি জানি। সব রেকর্ড কাগজ-কলমে কথা বলবে।
তার ওই বক্তব্যে উপজেলা প্রশাসনের  বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাদের মধ্যে বিরুপ প্রতিক্রীয়া সৃষ্টি হয়েছে।  সোমবার (০১ নভেম্বর) উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরে তার ওই বক্তব্য নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠে।
এ সময় তিনি নির্বাচনী আচরন বিধি লঙ্গন করে উপস্থিত জনতাকে ধর্মীয় প্রতিজ্ঞা করিয়ে বলেন, ‘আপনারা নৌকার পক্ষে কাজ করবেন ও  ভোট দিবেন’। ওই সমাবেশে উপস্থিত বক্তাদের মধ্যে জেলা আ’লীগের দপ্তর সম্পাদক মো. শেখ ফিরোজ আহম্মেদ ছাড়া সকলেই নৌকার পক্ষে ভোট চান। ওই সমাবেশে উপজেলার দীর্ঘা, শাঁখারীকাঠী ও শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থীরাও ভোট চেয়ে বক্তব্য রাখেন।
উপজেলার শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নের  চেয়ারম্যান পদের স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. ছিদ্দিকুর রহমান তুহিন (চশমা প্রতীক) অভিযোগ করে বলেন, রবিবার বিকালে সম্প্রীতি সমাবেশের নামে শ্রীরামকাঠী সহ উপজেলার ৩ ইউনিয়নের আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নির্ধারিত প্রার্থীর পক্ষে ভোট চাওয়া ও বিরোধী মতাদর্শের ভোটারদের হুমকী-ধামকী দেয়া হয়েছে। ভোটারদের প্রতিজ্ঞা করিয়ে ভোট চাওয়ায় তাদের ভোটাধীকার  ক্ষুন্ন করা হয়েছে। একই অভিযোগ উপজেলা ৩ ইউনিয়নের প্রতিদ্বন্দী প্রার্থীদের।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ছিদ্দিকুর রহমান জানান, নির্বাচনের আগে   প্রার্থীর পক্ষে  কোন  বড়  জনসমাবেশে নির্বাচনী আচরন বিধি লঙ্গন হয়। তবে ওই সমাবেশের অনুমতি  দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওবায়দুর রহমান বলেন,  আ’লীগের পক্ষ সম্প্রীতি সমাবেশের কথা বলে থেকে সেখানে সমাবেশের অনুমতি নেয়া হয়েছে। নির্বাচনী সমাবেশের কথা বলা হয় নি।
উপজেলা আ’লীগের সহসভাপতি মনিন্দ্র নাথ মজুমদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই সমাবেশে বক্তব্য রাখেন নাজিরপুর উপজেলা  চেয়ারম্যান মাস্টার অমূল্য রঞ্জন হালদার, মঠবাড়িয়া পৌর মেয়র রফিউদ্দিন আহম্মেদ ফেরদাউস, জেলা আ’লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক অ্যাড কানাই লাল বিশ্বাস প্রমুখ।
উল্লেখ্য, আগামী ১১ নভেম্বর উপজেলার  দীর্ঘা, শাঁখারীকাঠী ও শ্রীরামকাঠী এ ৩ ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

আরএইচএম/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২০:০২:১৪ ● ১২৯ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ