পদ্মা সেতু উদ্বোধন কুয়াকাটায় বিভিন্ন সংগঠনের আনন্দ শোভাযাত্রা

প্রথম পাতা » কুয়াকাটা » পদ্মা সেতু উদ্বোধন কুয়াকাটায় বিভিন্ন সংগঠনের আনন্দ শোভাযাত্রা
শনিবার ● ২৫ জুন ২০২২


কুয়াকাটায় বিভিন্ন সংগঠনের আনন্দ শোভাযাত্রা

কুয়াকাটা (কলাপাড়া) সাগরকন্যা অফিস॥

উন্নয়ন, সমৃদ্ধি, মর্যাদা, গৌরব ও অহংকারের প্রতীক পদ্মা সেতুর উদ্বোধনকে ঘিরে কুয়াকাটায় রাখাইন নৃ-জাতিগোষ্ঠি পিঠা উৎসবে মিলিত হয়েছে। সেই সাথে শনিবার সকালে বিভিন্ন সংগঠনের উদ্যোগে আনন্দ শোভাযাত্রা ও মিস্টি বিতরণ করা হয়।
এছাড়া বিগত কয়েকদিন ধরে বর্ণিল সাজে সেজে আছে কুয়াকাটা সৈকত। শনিবার সকাল সাড়ে নয়টায় কুয়াকাটা পর্যটন মোটেলের সামনে থেকে একটি বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা শুরু। আনন্দ শোভাযাত্রাটি সমুদ্র সৈকতে এসে শেষ হয়।
ট্যুরিস্ট পুলিশের উদ্যোগে আয়োজিত শোভাযাত্রায় ট্যুরিস্ট পুলিশ ছাড়াও ট্যুরিজমের সাথে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংগঠন, রাজনৈতিক ও সুধী সমাজের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন। এর আগে একঝাঁক পায়রা উড়িয়ে শুভ সূচনা করা হয়। সবশেষে উপস্থিত সকলের মাঝে মিষ্টি বিতরণ করে আনন্দ ভাগাভাগি করে নিয়েছেন অংশগ্রণকারীরা। শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন ট্যুরিস্ট পুলিশ কুয়াকাটা জোনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল কালাম আজাদ, সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুল খালেক, পুলিশ পরিদর্শক হাসনাইন পারভেজ, কুয়াকাটা পৌরসভার সাবেক মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আঃ বারেক মোল্লা, কুয়াকাটা প্রেসক্লাব সভাপতি নাসির উদ্দিন বিপ্লব ও টোয়াকের প্রেসিডেন্ট এবং কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি রুমান ইমতিয়াজ তুষার প্রমূখ।

---

কুয়াকাটার মিশ্রিপাড়া সীমা বৌদ্ধ বিহারের বৌদ্ধ ভিক্ষু উত্তম মহাথেরো জানান, কুয়াকাটার মিশ্রিপাড়ায় বসবাসরত রাখাইন নৃ-জাতিগোষ্ঠির লোকজন এই আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে পিঠা পুলি উৎসবের আয়োজন করেছেন। এই উৎসবে রাখাইন জনগোষ্ঠি ছাড়াও অন্যান্য ধর্মাবলম্বীরাও অংশগ্রহন করেন। তারা প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।
পদ্মা সেতু চালুর ফলে কুয়াকাটার মানুষ সামাজিক, অর্থনৈতিকসহ সকল ক্ষেত্রে এগিয়ে যাবে বলে মনে করেন কুয়াকাটা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র আঃ বারেক মোল্লা। এই জনপ্রতিনিধি ও রাজনীতিবিদ বলেন, পদ্মাসেতু উদ্বোধনে সবচেয়ে বেশি উপকৃত পর্যটন কুয়াকাটা তথা কলাপাড়া উপজেলাবাসী। এই বর্ষিয়ান রাজনীতিবীদ প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।

কুয়াকাটা পৌর মেয়র আনোয়ার হাওলাদার বলেন, পদ্মা বহুমুখী সেতু উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে যুগান্তকারী সূচনার জন্ম দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। পদ্মাসেতু উদ্বোধনে কুয়াকাটা পর্যটন নগরীসহ কুয়াকাটা পৌরবাসীর মাঝে যেন আনন্দের সীমা নেই। পৌর মেয়র জানান, পদ্মাসেতু দিয়ে কুয়াকাটায় আগত পর্যটকদের বরণে সকল প্রস্তুতি নিয়েছেন। পৌরসভার উদ্যোগে মহাসড়ক আলোক সজ্জাসহ বিভিন্ন সংগঠন তোরণ, ফেস্টুন ও ব্যানার টানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।
ট্যুরিস্ট পুলিশ কুয়াকাটা জোনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ আবুল কালাম আজাদ জানান, পদ্মা সেতু চালু হওয়ায় ট্যুরিস্ট পুলিশ কুয়াকাটায় বাড়তি পর্যটক সামাল দিতে প্রস্তুত এবং জনবল বৃদ্ধির উপর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে।

এনইউবি/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ১৯:০৭:২১ ● ৩৪ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ