কাশিয়ানিতে চেয়ারম্যানকে চাঁদা না দেওয়ায় বেধরক মারধর!

প্রথম পাতা » ঢাকা » কাশিয়ানিতে চেয়ারম্যানকে চাঁদা না দেওয়ায় বেধরক মারধর!
শনিবার ● ৯ এপ্রিল ২০২২


কাশিয়ানিতে চেয়ারম্যানকে চাঁদা না দেওয়ায় বেধরক মারধর!

 গোপালগঞ্জ সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার ফুকরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ ইসতিয়াক আহম্মেদ ওরফে পটু’কে চাঁদা না দেওয়ায় কাজী সাকির (৪০)কে মারপিট করে গুরুত্বর আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত কাজী সাকির তারাইল গ্রামের মাজেদ কাজীর ছেলে।
শুক্রবার (৮ এপ্রিল) সকাল ১১টায় তারাইল ভুমি অফিসের সামনে এ মারপিটের ঘটনা ঘটে। আহত কাজী সাকির’কে এলাকাবাসী উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্য জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। ওইদিন রাতেই কাজী সাকির বাদী হয়ে কাশিয়ানী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।
অভিযোগ সুত্রে ও আহত কাজী সাকির বলেন, আমি চট্রগ্রামে ব্যাবসা করি। গ্রামের বাড়িতে তেমন আশা হয়না। রোজায় এলাকায় জাকাত দিতে আসি এবং তারাইল বাজারেও একটি দোকার ঘর দিচ্ছি ব্যাবসা করার জন্য। ঘরের কাজ শুরু করার পর থেকে আমাদের চেয়ারম্যান শাহ ইসতিয়াক আহম্মেদ ওরফে পটু আমার কাছে ৫লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে শুক্রবার সকাল ১১টায় আমাদের ভুমি অফিসের সামনে থেকে চেয়ারম্যানের হুকুমে রইজ ফকির, বাহার কাজী, জহির কাজী, কাকন ফকির, রফিক শেখ, হামিম শেখ, হাদিস সিকদার, শফিকুল, বসিরসহ আরও ৪ থেকে ৫ জন আমার উপর হামলা করে। এসময় হামলাকারী বলে এখানে কিছু করতে হলে চেয়ারম্যানকে চাঁদা দিতে হবে। এসময় আমার কাছে থাকা ৮০ হাজার টাকা ও একটি এন্ড্রয়েট ও তিনটি বাটন মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়।
কাশিয়ানী থানার অভিযোগ তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সজিব কুমার মন্ডল বলেন, একটি অভিযোগ পেয়েছি আমি বাহিরে থাকায় এখনো তদন্তে যেতে পারিনি। তদন্ত করে আইনগত ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

এইচবি/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ১৬:৪১:২০ ● ২৮৪ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ