চরফ্যাশনে সামুদ্রিক সংরক্ষিত এলাকা বিভাজনে পরামর্শ সভা

প্রথম পাতা » ব্রেকিং নিউজ » চরফ্যাশনে সামুদ্রিক সংরক্ষিত এলাকা বিভাজনে পরামর্শ সভা
মঙ্গলবার ● ২৩ নভেম্বর ২০২১


চরফ্যাশনে সামুদ্রিক সংরক্ষিত এলাকা বিভাজনে পরামর্শ সভা

চরফ্যাশন (ভোলা) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

ভোলা জেলার চরফ্যাশন উপজেলায় ইউএসএআইডির অর্থায়নে “ইকোফিশ- ২” প্রকল্পের উদ্যোগে নিঝুম দ্বীপ সামুদ্রিক সংরক্ষিত এলাকার অঞ্চল বিভাজন (গধৎরহব চৎড়ঃবপঃবফ অৎবধ তড়হধঃরড়হ) প্রক্রিয়ার উপর উপজেলা ভিত্তিক পরামর্শ সভা বুধবার সকাল ১০ টায় উপজেলা পরিষদ, চরফ্যাশনের সম্মেলন কক্ষে এই পরামর্শ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভাপতিত্ব করেন সম্মানিত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল নোমান। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সম্মানিত উপজেলা চেয়ারম্যান জনাব আলহাজ্ব জয়নাল আবেদীন আখন। ইকোফিশ-২ প্রকল্পের গবেষকবৃন্দ, উপজেলার ইউনিয়ন চেয়ারম্যান প্রমূখ। সম্মানিত উপজেলা জ্যৈষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তার মুখ্য আলোচনার সাথে সভায় উপজেলার বিভিন্ন পর্যায়ের গুরুত্বপূর্ণ স্টেকহোল্ডারদের প্রত্যক্ষ অংগ্রহণের মাধ্যমে চরফ্যাশন উপজেলা সংলগ্ন সমুদ্র অঞ্চলের বিবিধ কার্যক্রম ও ব্যবহারের উপর সংগৃহীত উপাত্ত নিয়ে মতবিনিময় হয়। ইলিশ এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ মৎস্য ও মাৎস্য সম্পদের প্রজনন ও বিচরণ ক্ষেত্র, অভিগমন পথ, বিদ্যমান ও সম্ভাবনাময় পর্যটন এলাকা, বিপন্ন সামুদ্রিক জীব প্রজাতির আবাসস্থল চিহ্নিতকরণ, নৌযান চলাচলের প্রকৃত পথ চিহ্নিতকরণ, বিকল্প কর্মসংস্থান রূপে কাঁকড়া চাষ ও শুটকি প্রস্তুত বিবিধ বিষয়ে আলোচনা হয়। অনুষ্ঠানে সম্মানিত সভাপতি ও অন্যান্য উপস্থিত অতিথিরা সভা হতে প্রাপ্ত তথ্য চরফ্যাশন সংলগ্ন সামদ্রিক সংরক্ষিত এলাকায় বিদ্যমান কার্যক্রম চিত্রায়ন ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা প্রণয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে মর্মে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
উল্লেখ্য; মৎস্য অধিদপ্তর, ওয়ার্ল্ডফিশ, আইইউসিএন বাংলাদেশ ও সুশীলনের বাস্তবায়নে “ইউএসএআইডি ইকোফিশ- ২’’ প্রকল্প ইতোমধ্যেই ২০১৪ সাল থেকে মৎস্য সম্পদ সংরক্ষণ, জেলেদের জীবনমান উন্নয়ন ও সামুদ্রিক জীববৈচিত্র সংরক্ষনে উপকূলীয় জেলাসমূহে কাজ করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় ইকোফিশ-২ প্রকল্প চরফ্যাশন সংলগ্ন সামুদ্রিক সংরক্ষিত এলাকায় উপরোক্ত কর্মসূচি সহ নতুনভাবে সুনীল- অর্থনীতি (ব্লু-ইকোনমি) নিয়ে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

এএইচ/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ০:১৩:৩১ ● ৪৬ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ