কলাপাড়ায় সংখ্যালঘু পরিবারের বসত ঘর ভাংচুর!

প্রথম পাতা » পটুয়াখালী » কলাপাড়ায় সংখ্যালঘু পরিবারের বসত ঘর ভাংচুর!
মঙ্গলবার ● ২৪ মে ২০২২


কলাপাড়ায় সংখ্যালঘু পরিবারের বসত ঘর ভাংচুর!

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) সাগরকন্যা অফিস॥

আদালতের আদেশ অমান্য করে সংখ্যালঘু পরিবারের বসত ঘর ভাংচুর, লুটপাট ও দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। পটুয়াখালীর কলাপাড়া পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড কলেজ রোডের সুমন সিকদারের বাড়িতে এ ঘটনাটি ঘটেছে।
সুমন সিকদার লিখিত অভিযোগে জানান, দীর্ঘ ৫০ বছর যাবৎ বসবাস করে আসছি। খেপুপাড়া মৌজার ৯৪৬০ নং দাগের ২ একর ৩০ শতাংশ জমি নিয়ে প্রতিবেশি মৃত গোলাম মোস্তফা সেলিমের স্ত্রী সালমা বেগমের সাথে বিরোধ থাকায় কলাপাড়া কলাপাড়া বিজ্ঞ সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। উক্ত জমিতে মুছা গাজী, সালমা বেগম, মেহেদী হাসান ও মামুন পাকা ভবন নির্মান করতে গেলে জমির মালিক ওই চার জনকে আসামী করে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে গত ১১ এপ্রিল অপর একটি মামলা করে। আদালতের মামলা নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত আসামীগন কলাপাড়া বিজ্ঞ সিনিয়র সহকারী জজ আদালতের নির্দেশ মানিয়া চলিবেন। সুমন পরিবার পরিজনদের নিয়ে গত সোমবার (২৩ মে) আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যায়।  সেই সুযোগে বেলা ১১ টায় আদালতের নির্দেশকে উপেক্ষা করে পুনঃরায় মুসা গাজী, মেহেদি হাসান, সালমা বেগম, মামুন হাওলাদারের নেতৃত্বে আরও চার থেকে পাঁচ জন আমার রান্না ঘরের টিনের বেড়া ভাঙ্গিয়া ভিতরে থাকা মালামাল লুট করে নেয় ও দখলের চেষ্টা চালায়। এ সময় হামলাকারীরা প্রায় এক লক্ষ টাকার ক্ষতি সাধন করে।
এ ব্যাপারে মুসা গাজী বলেন,আমি ঘটনার সাথে জড়িত নই,আমার শ্যলক মেহেদি হাসান লোক দিয়ে আংশিক বেড়া ছুটিয়েছেন।
কলাপাড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো.জসিম জানান, আমাদের কাছে এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ আসলে আইনগত ব্যবস্থা নিব।

এসকেআর/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২৩:৩৩:৪৯ ● ৭৮ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ