মন্দির গুড়িয়ে দেয়ার হুমকী ঝালকাঠিতে এক পরিবারের কাছে জীম্মি ১০ হিন্দু পরিবার

প্রথম পাতা » ঝালকাঠী » মন্দির গুড়িয়ে দেয়ার হুমকী ঝালকাঠিতে এক পরিবারের কাছে জীম্মি ১০ হিন্দু পরিবার
মঙ্গলবার ● ১৯ মার্চ ২০১৯


---

ঝালকাঠি সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥
ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলার ১নং চেচরীরামপুর ইউনিয়নে ভায়লাবুনিয়া গ্রামের মিস্ত্রী বাড়িতে জমাজমা নিয়ে দীর্ঘ বিরোধের জের ধরে মথুয়া সম্প্রদায়ের মন্দির ভেঙে গুড়িয়ে দেয়ার হুমকী দিচ্ছে একটি সন্ত্রাসী পরিবার। মিথ্যা অভিযোগসহ নানা ভাবে হয়রানী করে আসছে অসহায় দশটি পরিবারকে। আর এলাকার একটি ভূমিদস্য বিএনপির-জামাতচক্র সন্ত্রাসীদের নেপথ্যে ইন্ধন জোগাচ্ছে।

গ্রামের অসহায় ওই হিন্দু পরিবারের রতন মিস্ত্রী জানায়, একই বাড়ির গৌরাঙ্গ মিস্ত্রীর সাথে তাদের ১০টি পরিবারের জমি নিয়ে দীর্ঘ দিনের বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে বারবার স্থানীয় এমনকী উপজেলা চেয়ারমানের কাছে সালিশী বৈঠক হলেও  গৌরাঙ্গ মিস্ত্রী তা না মেনে বিরোধ জিইয়ে আসছে। গৌরাঙ্গ মিস্ত্রীর দুই ছেলে সুশান্ত মিস্ত্রী ও  প্রশান্ত মিস্ত্রী এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী এবং বিএনপির ছত্রছায় জোট-জামায়াত আমলে নানা অপকর্ম করে আসছে। এ দুই ভাই আমাদের ১০ পরিবারের সম্পত্তি দখলের পায়তারা করে আসছে। দুই ভাইয়ের মধ্যে প্রশান্ত মাঝে মাঝে ঢাকায়  থেকে বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্মকান্ড করে বেড়ায়। যে কারণে আমরা সব সময় ভয়ে থাকি। আর ওদের পেছনে একটি বিএনপি চক্রের ভূমিদস্যরা ইন্ধন যোগাচ্ছে।

গত ১৫ মার্চ সুশান্ত, প্রশান্ত আমাদের মেরে ফেলার হুমকী দেয় এবং মন্দির গুড়িয়ে দেয়ার কথা বলে। আর এ বিষয়টি কাঁঠালিয়া থানায়ও মৌখিক ভাবে জানিয়েছি, বলেন রতন মিস্ত্রী।

এব্যাপারে কাঁঠালিয়া থানার ওসি মো. এনামুলক হক সাংবাদিকদের জানান, বিষয়টি সরেজমিন তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১০:৩০:৪৪ ● ৪৭৪ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ