ছাতকে প্রবাসীর বাড়ীতে হামলা, গ্রেফতার-১

প্রথম পাতা » ব্রেকিং নিউজ » ছাতকে প্রবাসীর বাড়ীতে হামলা, গ্রেফতার-১
শুক্রবার ● ৩০ এপ্রিল ২০২১


ছাতকে প্রবাসীর বাড়ীতে হামলা, গ্রেফতার-১

ছাতক (সুনামগঞ্জ) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

ছাতকে একটি প্রবাসী পরিবারকে অবরুদ্ধ করে রাখা, বারবার হত্যার হুমকি ও নিজ বাড়ীর গেইট নির্মাণে বাধা এবং দু’দফা গেইট নির্মাণের নির্মাণসামগ্রী লুটপাটের অভিযোগে বৃহস্পতিবার খারগাও গ্রামের সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ মোহাম্মদ আলী (৩০) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সে গ্রামের মৃত হানিফ আলীর পুত্র।
ছাতক থানার এসআই উজ্জ্বল মিয়া অভিযান চালিয়ে খারগাও এলাকার একটি দোকান থেকে মোহাম্মদ আলীকে গ্রেফতার করেন। এ মামলায় আবুল কাশেম, জাভেদ মিয়া, মান্নান মিয়া সহ আরো ১৪ জন আসামী পলাতক রয়েছে। গ্রামের একটি প্রবাসী পরিবার দীর্ঘদিন ধরে একই গ্রামের সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ চক্রের কারণে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন। এ চক্র প্রবাসী পরিবারের লোকজনকে হত্যা, গুম করার হুমকি দেয়া সহ বাড়ি-ঘরে একাধিকবার হামলা-লুটপাট করেছে। ইতিমধ্যে প্রকাশ্যে দু’দফা লুটপাট করে রড, সিমেন্ট, ইট সহ লক্ষাধিক টাকা মূল্যের নির্মাণসামগ্রীও লুট করে নিয়েছে গ্রামের আবুল কাশেম ও মান্নান চক্র। উপজেলার কালারুকা ইউনিয়নের খারগাও গ্রামের আতাউর রহমান ও আজিজুর রহমানের পরিবারের উপর চাঁদার দাবিতে এ অত্যাচার-নির্যাতন চালানো হচ্ছে। গত ২৯ মার্চ প্রবাসী পরিবারের বাড়ির রাস্তার সম্মুখে একটি গেইট নির্মাণ করতে চাইলে গ্রামের আবুল কাশেম-মান্নান চক্র এতে বাধা দেয় এবং প্রবাসী পরিবারের কাছে ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। এর আগেও এ পরিবারের কাছে একাধিকবার মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করেছে তারা। চাঁদা না দেয়ায় নির্মাণাধীন গেইটের পিলার ভাংচুর ও নির্মাণসামগ্রী লুট করে নিয়ে যায় এ সন্ত্রাসী-চাঁদাবাজ চক্র। তারা ইতিমধ্যে প্রবাসী দু’জনকে হত্যারও হুমকি দিয়েছে। গেইট নির্মাণ ও লুটপাটের বিষয় নিয়ে ছাতক থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেয়া হলে উভয়পক্ষকে নিয়ে থানায় আলোচনা হয়। এসময় ইউপি চেয়ারম্যান অদুদ আলমও উপস্থিত ছিলেন। থানায় আবুল কাশেমরা একটি লিখিত দিয়েছে। এতে উল্লেখ করা হয়েছে প্রবাসী পরিবারের গেইট নির্মাণ করতে তাদের কোনো আপত্তি নেই। তাদের নিজস্ব ভূমিতেই তারা গেইট নির্মাণ করছে। ২৫এপ্রিল গেইট নির্মাণ কাজ শুরু করেন আতাউর রহমানের পরিবার। সারাদিন নির্মাণ কাজ চললেও এতে কোনো আপত্তি আসেনি। রাত ১০টার দিকে আবুল কাশেম, আব্দুল মান্নান, জসিম উদ্দিন সহ চক্রের লোকজন নির্মাণকাজ গুড়িয়ে দিয়ে প্রায় ৭০ হাজার টাকা মূল্যের রড, সিমেন্ট সহ নির্মাণসামগ্রী একটি পিকআপ ভ্যানে তুলে নিয়ে যায়। এসময় তারা নির্মাণ শ্রমিকদের মারপিট ও আতাউর রহমানের পুত্র খালেকুজ্জামানকে মারপিট করে আহত করে। পরে লুটপাটকারীরা প্রবাসী পরিবারের বাড়িতেও হামলা চালিয়েছে। এসব ঘটনায় আতাউর রহমানের পুত্র খালেকুজ্জামান বাদী হয়ে ছাতক থানায় একটি মামলা (নং-৩১) দায়ের করেছেন। ছাতক থানার ওসি মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ মামলার প্রেক্ষিতে মোহাম্মদ আলীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। প্রবাসী নাছির আলী জানান, সন্ত্রাসী ও হামলাকারীদের ভয়ে পরিবার-পরিজন নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন তিনি। তাদেরকে বাড়ি-ঘরে যেতে দিচ্ছেনা গ্রামের প্রতিপক্ষরা। গেইট নির্মাণ নিয়ে থানা ও গ্রামে একাধিক সালিশ বৈঠক হয়েছে। সালিশ ও আইনকানুন কিছুই মানতে রাজি হয়নি গ্রামের এ দখলদার পক্ষ। তারা নগদ টাকা, বাড়ির রাস্তা সহ রাস্তার পাশের কিছু জমি জোরদখল করে নিতে চায়।


এএমএল/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২০:৪১:৪৮ ● ১৯৮ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ