গৌরনদীতে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধু’র আত্মহত্যা

প্রথম পাতা » বরিশাল » গৌরনদীতে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধু’র আত্মহত্যা
রবিবার ● ১৯ জুন ২০২২


গৌরনদীতে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধু’র আত্মহত্যা

গৌরনদী (বরিশাল) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

বরিশালের গৌরনদীতে পারিবারিক কলহের জেরধরে ঘরের আঁড়ার সাথে গঁলায় ওড়না পেঁচিয়ে স্বর্ণা বেগম (২০) নামে এক গৃহবধু আত্মহত্যা করেছে। রোববার (১৯ জুন) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার পূর্ব কসবা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে গৌরনদী থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য স্বর্ণা বেগমের লাশ গতকাল দুপুরে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সে (স্বর্ণা) উপজেলার বড় কসবা গ্রামের শিপন সরদারের কন্যা ও পূর্ব কসবা গ্রামের মুদি দোকানদার মাসুম খানের স্ত্রী।
স্বর্নার বাবা শিপন সরদার অভিযোগ করে বলেন, গত দুই বছর পূর্বে উপজেলার  পূর্ব কসবা গ্রামের জালাল খানের ছেলে মাসুদ খানের সঙ্গে  আমার কন্যা স্বর্ণা বেগমের সামাজিক ভাবে বিয়ে হয়। দোকানের পণ্য ক্রয়ের জন্য আমার মেয়ে জামাতা মাসুম খান গত রমজান মাসে এক লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে আমার কন্যা স্বর্ণাকে প্রায়ই শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছিলো। দাবিকৃত যৌতুকের একলাখ টাকা না পেয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে জামাই মামুম খান নির্যাতন করে স্বর্ণাকে হত্যা করে লাশ ঘরের আঁড়ার সাথে ঝুলিয়ে রাখে বলে তিনি অভিযোগ করেন। পুলিশ তাকে (শিপন) জানায়, ময়না তদন্তে হত্যা রিপোর্ট  আসলে ইউডি মামলাটি এমনিতেই হত্যা মামলায় রুজু হয়ে যাবে। পুলিশের এমন কথায়  আমি বাদি হয়ে থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করেছি।
ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী গৌরনদী থানার এসআই সুশান্ত কুমার জানান, খবর পেয়ে  তিনি সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গতকাল রোববার সকালে ঘটনাস্থলে পৌছে স্বর্ণার লাশের সুরাতহাল বিপোর্ট িৈতরি করেন। রিপোর্টে গলায় ফাঁসের চিহ্ন ছাড়া শরীরের কোন স্থানে  ষ্পট পাওয়া যায়নি।  আত্মহননকারী স্বর্ণা বেগমের বাবা শিপন সরদার থানায় অপমৃত্যু’র মামলা দায়ের করেছে। ময়না তদন্তের জন্যা স্বর্নার লাশ গতকাল দুপুরে বরিশাল  শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠোনো হয়েছে। ময়না তদন্তে হত্যা রিপোর্ট  আসলে ইউডি মামলাটি এমনিতেই হত্যা মামলায়  রুজু করা হবে বলে এসআই সুশান্ত কুমার জানান।

বিকেএস/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২২:০২:৪০ ● ৪১ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ