গলাচিপায় শিকলে বেঁধে কিশোর নির্যাতন!

প্রথম পাতা » পটুয়াখালী » গলাচিপায় শিকলে বেঁধে কিশোর নির্যাতন!
শুক্রবার ● ১৩ মে ২০২২


গলাচিপায় শিকলে বেঁধে কিশোর নির্যাতন!

গলাচিপা (পটুয়াখালী) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

পটুয়াখালীর গলাচিপায় চুরির অপবাদে এক কিশোরকে শিকলে বেঁধে তিনদিন যাবত অমানবিক নির্যাতনের ভিডিও প্রকাশ পেয়েছে। আর নির্যাতনের পর থেকে ওই কিশোর নিখোঁজ রয়েছে। বিগত ৯ এপ্রিল গলাচিপা সদর ইউনিয়নের এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতিত ওই কিশোরের নাম মুন্না, তার বয়স ১৬ বছর। সে ৯নং ওয়ার্ডের শাহজাহান কমান্ডারের ছেলে। প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা যায়, কিশোর মুন্নাকে একটি গাছের সাথে লোহার শিকলে বেঁধে বোয়ালিয়া রাড়ি বাড়ির হজরত আলী নামে এক ব্যক্তি বেধরক মার ধর করছে আর আশ পাশে দাড়িয়ে দেখেতেন ওই বাড়ির লোকজন। এ সময় অনেককে ভিডিও করতেও দেখা গেছে। মারধরে মুন্নার শরীরে রক্তাক্ত জখম হতেও দেখা গেছে।
মুন্নার পরিবারের অভিযোগ গত ৯ মে থেকে ১১ মে মধ্যরাত পর্যন্ত দফায় দফায় মুন্নার উপর এ অমনাবিক নির্যাতন চালানো হয়। তবে ১১ এপ্রিল রাতের পর থেকে ওই কিশোরকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। মুন্নার সৎ মা হাসিনা বেগম বলেন, তারা ঢাকায় থাকেন, মুন্না বাড়িতে থাকতো। খবর পেয়ে তার বাড়িতে এসেছেন। তার ছেলেকে টাকা চুরির অপবাদ দিয়ে ধরে নিয়ে যাওয়া হয়। তাকে দফায় দফায় তিনদিন হজরত আলী, ফেরদৌস, মমতাজ এবং তানিয়া অমানবিন নির্যাতন করে। এরপর থেকে আমার ছেলেকে খুঁজে পাচ্ছে না।
এ বিষয়ে গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)  এম আর সওকত আনোয়ার ইসলাম জানান, আমরা অভিযোগ পেয়েছি, এ বিষয়ে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।
পটুয়াখালীর পুলিশ সুপার মোহম্মদ শহীদুল্লাহ জানান, বিষযটি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে।


এসডি/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২২:১৩:০৬ ● ৩২ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ