ছাতকে ঘুষ-দূর্ণীতির অভিযোগে রেলওয়ের প্রধান সহকারির বদলি

প্রথম পাতা » সর্বশেষ » ছাতকে ঘুষ-দূর্ণীতির অভিযোগে রেলওয়ের প্রধান সহকারির বদলি
বুধবার ● ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১


ছাতকে ঘুষ-দূর্ণীতির অভিযোগে রেলওয়ের প্রধান সহকারির বদলি

ছাতক (সুনামগঞ্জ) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

সুনামগঞ্জের ছাতকে রেলওয়ের প্রধান সহকারীর সুরঞ্জন পুরকায়স্থকে ঘুষ-বাণিজ্যের অভিযোগে অবশেষে ছাতক থেকে চট্রগ্রামে শান্তিমুলক বদলী করেছেন রেল বিভাগ। ২৫ আগষ্ট চট্রগ্রাম রেলওয়ে(পূর্ব)  বিভাগের প্রধান প্রকৌশলীর পক্ষে সিনিয়র পার্সোনেল অফিসার মো. সৈয়দ হোসেন স্বাক্ষরীত এক আদেশে তাকে বদলী কারা হয়েছে। এ আদেশকে স্থগিত করতে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব, উপ-সচিবের কাছে দৌড় ঝাপ শুরু করেছেন সুরঞ্জন পুরকায়স্থ।

জানাযায়, ২০২০ সালে দুর্নীতির অভিযোগে ছাতক বাজারে উপ-সহকারী প্রকৌশলী আব্দুল নুরকে ও তার পুত্র মাহবুবুর আলমকে বদলি করা করা হলেও অদৃশ্য শক্তির প্রভাবে প্রধান সহকারী সুরঞ্জন পুরকায়স্থ’র ওপর কোনো শাস্তির খড়গ পড়েনি। রেল কর্মচারীদের কাছে তার পরিচয় হচ্ছে  ‘বড়বাবু’। সরকারী সম্পত্তি লুটপাট এবং অবৈধভাবে বিক্রির অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। তার নানা অনিয়ম দূনীতির প্রতিবাদ করায় ২০১৮ সালে ছাতকে রেলওয়ের সহকারী প্রকৌশলী মুজিবুর রহমান তার হাতে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত হন। এ ঘটনায় সুরঞ্জন বাবু বিরুদ্ধে মুজিবুর রহমান বাদী হয়ে ছাতক থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি দায়ের করেন।

ছাতক রেলওয়ে কলোনীর বাসিন্দা সুলেমান মিয়া ২০২০ সালের অক্টোবরে সুরঞ্জনের অনিয়ম-দুর্নীতির ফিরিস্তি তুলে ধরে বাংলাদেশ রেলওয়ের চট্টগ্রাম সিআরবি’র প্রধান প্রকৌশলী (পূর্ব) বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেন। তার অভিযোগের প্রেক্ষিতে ১০ নভেম্বর ২০২০ সালে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব (প্রশাসন-৪) মীর আলমগীর হোসেনকে আহবায়ক করে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। তদন্ত কমিটি বিষয়টি তদন্ত করে ইতিমধ্যে তার বিরুদ্ধে অনিয়ম ও ঘুষগ্রহণসহ অন্যান্য অভিযোগের কিছু কাগজপত্র হাতে পেয়েছেন। তার নানা দূনীতি-অনিয়ম ঘুষের একাধিক প্রতিবেদন জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকায় প্রকাশিত হবার পর দূর্নীতির শিরোমণি সুরঞ্জন পুরকায়স্থকে ছাতক থেকে শাস্তিমূলক বদলী করেন।


এএমএল/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ১৯:৪৬:০২ ● ৬২ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ