কুয়াকাটায় পর্যটনমুখী ব্যবসায়ীদের দক্ষতা অর্জনে প্রশিক্ষণ কর্মশালা

প্রথম পাতা » কুয়াকাটা » কুয়াকাটায় পর্যটনমুখী ব্যবসায়ীদের দক্ষতা অর্জনে প্রশিক্ষণ কর্মশালা
শনিবার ● ৪ জানুয়ারী ২০২০


---

 

আনোয়ার হোসেন আনু, কুয়াকাটা থেকে॥ 

ট্যুর অপারেটর, ট্যুরিষ্ট গাইড, স্ট্রীট ফুড ভেন্ডর ও কমিউনিটি বেইজড ট্যুরিজম বিষয়ে দক্ষতা বৃদ্ধি এবং সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে কুয়াকাটায় তিনদিন ব্যাপী ভিন্ন ভিন্ন ভাবে ৪টি প্রশিক্ষণ কর্মশালা শুরু হয়েছে। পর্যটন হলিডে হোমস’র হল রুমে ৩ জানুয়ারী (শুক্রবার) এ কর্মশালা শুরু হয়। ৫ জানুয়ারী (রবিবার) শেষ হবে। বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড এর আয়োজনে এবং ট্যুর অপারেটরস এসোসিয়েশন অব কুয়াকাটা (টোয়াক) এর উদ্যোগে এ প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

 

প্রশিক্ষণ কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড পরিচালক (যুগ্ম সচিব) আবু তাহের মোহাম্মাদ জাবের, পরিচালক (যুগ্ম সচিব) মোঃ সাইফুল ইসলাম, সহকারী পরিচালক মোঃ মাজহারুল ইসলাম, মোঃ বোরহান উদ্দিন সহ বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের ট্রেনার বৃন্দ। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ট্যুর অপারেটরস এসোসিয়েশন অব কুয়াকাটা (টোয়াক) এর প্রেসিডেন্ট রুমান ইমতিয়াজ তুষার, সেক্রেটারী জেনারেল আনোয়ার হোসেন আনু সহ ট্যুর অপারেটর বৃন্দ। ৪টি প্রশিক্ষণ কর্মশালায় ১শ ২০জন প্রশিক্ষানার্থী অংশগ্রহন করেন।

---

 

বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড সুত্রে জানাগেছে, কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে ট্যুরিজম ভিত্তিক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী, ট্যুরিষ্ট গাইড, ট্যুর অপারেটর ও রাখাইনদের কমিউনিটি বেইজড ট্যুরিজমে দক্ষ জনবল সৃষ্টির লক্ষ্যে এ প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করেছে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড।

প্রশিক্ষণ কর্মশালায় বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের পরিচালক (যুগ্ম সচিব) আবু তাহের মোহাম্মাদ জাবের বলেন, কুয়াকাটাকে আন্তর্জাতিক মানের পরিকল্পিত পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে সরকার একটি মাষ্টার প্লান তৈরী করার পরিকল্পণা গ্রহন করেছে। মাষ্টার প্লান তেরী করার জন্য ইতোমধ্যে বিদেশী কনসালটেন্ট নিয়োগ করেছে। তারা ইতোমধ্যে প্রাথমিক ভাবে কাজ শুরু করেছেন।

 বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের পরিচালক (যুগ্ম সচিব) মোঃ সাইফুল ইসলাম বলেন, কুয়াকাটাকে পর্যটক বান্ধব হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। পরিস্কার পরিচ্ছন্ন পর্যটন নগরী হিসেবে পর্যটকদের উপহার দিতে হবে। পর্যটনমুখী সকল ব্যবসায়ী ও এখানকার মানুষদের পর্যটন বান্ধব মানুষ হতে হবে। তাহলেই কুয়াকাটায় দেশী বিদেশী পর্যটকদের আগমন ঘটবে। তিনি বলেন, কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত পর্যটন নগরী হিসেবে দেশে বিদেশের পর্যটকদের কাছে পরিচিতি লাভ করতে সক্ষম হয়েছে। সূর্যোদয় সূর্যাস্তের মত বিরল দৃশ্য,প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ও সমুদ্র সৈকত পর্যটকদের দৃষ্টি কেড়েছে। তারপরও কুয়াকাটা সৈকতে আশানারূপ পর্যটকদের আগমন ঘটছে না। এজন্য পর্যটন এলাকার ব্যবসায়ী সহ স্থানীয়দের আচরন বিধির পরিবর্তন ও সেবার মানষিকতা নিয়ে কাজ করতে হবে। প্রয়োজন দক্ষ জনবল। তাই বাংলাদেশ টুরিজম বোর্ড পর্যটন বান্ধব দক্ষ জনবল তৈরী এবং সচেতনতা সৃষ্টি লক্ষে এ প্রশিক্ষনের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড।

 

এএইচএ/কেএস 

 

বাংলাদেশ সময়: ১৮:৪৫:৩৪ ● ১০০২ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ