টেকসই উন্নয়নে সরকারি কেনাকাটায় জিটিএফএর প্রাতিষ্ঠানিকতা জরুরি

প্রথম পাতা » ময়মনসিংহ » টেকসই উন্নয়নে সরকারি কেনাকাটায় জিটিএফএর প্রাতিষ্ঠানিকতা জরুরি
বৃহস্পতিবার ● ৪ এপ্রিল ২০১৯


ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে জিটিএফ কর্মশালা

ময়মনসিংহ সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥


টেকসই উন্নয়ন এর মাধ্যমে উন্নত দেশ হিসাবে বাংলাদেশের উত্তোরণের লক্ষ্যে সরকার কাজ করছে এবং সেজন্য সরকারি ক্রয়ে জনগণের অর্থের সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করার ওপর সরকার সর্বাধিক জোর দিয়েছে।
ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে বিভিন্ন ক্রয়কারী সংস্থা ও দরপত্র দাতাদের প্রতিনিধিদের জন্য একদিনের জিটিএফ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের অধীন বাস্তবায়ন নিরীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ (আইএমইডি)’র সচিব মো. আবুল মনসুর ফায়জুল্লাহ একথা বলেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সেন্ট্রাল প্রকিউরমেন্ট টেকনিক্যাল ইউনিট (সিপিটিইউ) এর মহাপরিচালক এবং আইএমইডি-র অতিরিক্ত সচিব মো. আলী নূর, ময়মনসিংহের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার এ এইচ এম লোকমান, সিপিটিইউ, আইএমইডি এর পরিচালক (প্রশিক্ষণ ও সমন্বয়), শীষ হায়দার চৌধুরী।
ময়মনসিংহের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সমর কান্তি বসাক জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত কর্মশালার উদ্বোধনী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন। ময়মনসিংহ বিভাগের জিটিএফের (গভর্মেন্ট-টেন্ডারার ফোরাম) অধীনে দরপত্রকারী সম্প্রদায় এবং ক্রয় কারী সংস্থার কমকর্তারা ই-জিপি সহ সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত বিষয়ে তাদের মতামত, ধারনা এবং অভিজ্ঞতার বিনিময় করেন এবং ফোরামের গঠনের পর থেকে গৃহিত কার্যক্রম গুলির মূল্যায়ন করেন।
জিটিএফ টেকসই করতে এবং ৬৪ জেলায় ৬৪ টি জিটিএফ এর কেন্দ্রীয় একটি শীর্ষ সংগঠন তৈরির লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। কর্মশালায় পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপনয় বলা হয়, সরকারি ক্রয় চুক্তির সুষ্ঠ বাস্তবায়ন এবং ক্রয় সংক্রান্ত কোন অস্পষ্টতা বা বিভ্রান্তি দূর করতে জিটিএফ এর প্রাতিষ্ঠানিকতা প্রতি জেলায় ক্রয়কারী ও দরপত্র দাতাদের পারস্পরিক বুঝাপরার পরিবেশ তৈরির মাধ্যমে জনগণের সম্পদের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করবে।

এফএন/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২১:৪৫:১৪ ● ৩৬৬ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ