আমতলীতে হতদরিদ্রের জমি দখলের অভিযোগ!

প্রথম পাতা » বরগুনা » আমতলীতে হতদরিদ্রের জমি দখলের অভিযোগ!
রবিবার ● ২ মে ২০২১


আমতলীতে হতদরিদ্রের জমি দখলের অভিযোগ!

আমতলী (বরগুনা) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

বরগুনার আমতলী উপজেলার পূর্ব চিলা মৌজার হতদরিদ্র দেলোয়ার হোসেনকে সরকারের দেয়া এক একর জমি প্রভাবশালী ছালাম সন্ন্যামত, মহসীন সন্ন্যামত তার লোকজন জোরপুর্বক দখল করে নিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। হতদরিদ্র মোঃ দেলোয়ার হোসেন এমন অভিযোগ করেন। এ বিষয়ে দেলোয়ার হোসেন রবিবার (২ মে) আমতলী থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
জানাগেছে, ২০০৬ সালে উপজেলার পুর্ব চিলা মৌজায় এক একর সরকারী খাস জমি উপজেলা ভুমি অফিস মোঃ দেলোয়ার হোসেনকে বন্দোবস্ত দেয়। ২০১২ সালে ওই জমি তার নামে নামজাড়ি করা হয়। যার ক্ষতিয়ান নম্বর-৬৫০। বন্দোবস্ত পাওয়ার পর থেকে দেলোয়ার হোসেন জমি ভোগদখল করে আসছে। ২০১৯ সালে দোলোয়ার হোসেন দুই সন্তানের লেখাপড়ার উদ্দেশ্যে ঢাকায় চলে যান। ওইখানে তিনি একটি পোশাক কারখানায় কাজ নেন। তিনি ঢাকা যাওয়ার সুবাদে তার বন্দোবস্তকৃত জমি স্থানীয় ছালাম সন্ন্যামত, মহসীন সন্ন্যামত, মঞ্জু সন্ন্যামত ও বাদল সন্ন্যামত জোরপূর্বক দখল করে নেন এমন অভিযোগ দেলোয়ার হোসেনের। তারা ওই জমির সীমানা (আইল) ভেঙ্গে নিজের জমির সাথে মিলিয়ে নিয়েছে। খবর পেয়ে জমির মালিক দেলোয়ার হোসেন তার জমি উদ্ধারের চেষ্টা চালায়। এতে সালাম সন্ন্যামত, মহসীন সন্ন্যামত ও তার লোকজন তাকে জীবন নাশের হুমকি দিচ্ছে। অসহায় দেলোয়ার হোসেন সরকারের দেয়া জমি বুঝে পেতে এলাকার মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরলেও কোন প্রতিকার পাচ্ছেন না। স্থানীয়ভাবে কয়েকদফায় সালিশ বৈঠকে বসার কথা হলেও সালাম ও মহসীন সন্ন্যাসত সালিস বৈঠকে বসছে না। তারা প্রভাবশালী হওয়ায় জমি দখল করে নিয়েছেন। এ ঘটনায় হতদরিদ্র দেলোয়ার হোসেন রবিবার আমতলী থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
স্থানীয়রা বলেন, প্রভাবশালী ছালাম সন্ন্যামত, মহসীন সন্ন্যামত, মঞ্জু সন্ন্যামত ও বাদল সন্ন্যামত দরিদ্র দেলোয়ার হোসেনের জমি জোরপুর্বক দখল করে নিয়েছে। অসহায় হতদরিদ্র দেলোয়ার হোসেন বলেন, আমি গরিব মানুষ দুটি ছেলে মেয়ের লেখাপড়ার জন্য ঢাকায় থেকে একটি পোশাক কারখানায় কাজ করি। এই সুযোগে ছালাম সন্ন্যামত, মহসীন সন্ন্যামত, মঞ্জু সন্ন্যামত ও বাদল সন্ন্যামত জমি দখল করে নিয়েছে। তিনি আরো বলেন, তারা আমাকে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে। আমি প্রশাসনের কাছে আমার জমি বুঝে পাওয়ার দাবী জানাই।
প্রভাবশালী ছালাম সন্ন্যামত জমি জোর করে দখলের কথা অস্বীকার করে বলেন, আমার বাবার জমি আমি ভোগ দখল করি।
আমতলী থানার এএসআই সাধন কুমার পাল বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আইন শৃংখলা রক্ষায় উভয় পক্ষকে শান্ত থাকতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আমতলী থানার ওসি মোঃ শাহ আলম হাওলাদার বলেন, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এমএইচকে/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২১:২৭:৪৮ ● ১০৮ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ