ভান্ডারিয়ায় আয়া’র শ্লীলতাহানির চেষ্টা, মাদ্রাসা অধ্যক্ষ আটক!

প্রথম পাতা » পিরোজপুর » ভান্ডারিয়ায় আয়া’র শ্লীলতাহানির চেষ্টা, মাদ্রাসা অধ্যক্ষ আটক!
সোমবার ● ২৭ জুন ২০২২


ভান্ডারিয়ায় আয়া’র শ্লীলতাহানির চেষ্টা, মাদ্রাসা অধ্যক্ষ আটক!

পিরোজপুর সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলার আতরখালী ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার এক আয়ার শ্লীলতাহানির অভিযোগে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ইদ্রিস আলী সিকদারকে সোমবার (২৭ জুন) দুপুরে আটক করেছে থানা পুলিশ। সে জেলার মঠবাড়ীয়া উপজেলার ছোট শৌলা গ্রামে মৃত হাশেম আলী সিকদারের ছেলে।
এ ঘটনায় আতরখালী ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার আয়া (মোসাঃ শায়লা বেগম) ভাণ্ডারিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন।
ভুক্তভোগি আয়া জানান, সোমবার দুপুর সোয়া ১ টার সময় মাদ্রাসা ছুটির পরে ফাঁকা শিক্ষক মিলনায়তনে উক্ত আয়া দরজা-জানালা বন্ধ করছিলেন।  এ সময় মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ইদ্রিস আলী সিকদার তাকে পেছন থেকে ঝাপটে ধরে শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করে। এ সময় তার (আয়ার) চিৎকারে মাদ্রাসার নৈশ প্রহরী আল আমিন খন্দকার ও পরিচ্ছন্ন কর্মী নাঈম হোসেন ঘটনাস্হলে উপস্থিত হলে অধ্যক্ষের হাত থেকে সে রক্ষা পায়। পরে ভুক্তভোগী ওই নারী পুলিশের জরুরী সেবা ‘৯৯৯’ নম্বরে ফোন করলে থানা পুলিশ তাৎক্ষনিকভাবে অধ্যক্ষকে আটক করে। এর আগে এলাকাবাসী অধ্যক্ষকে আটকে রাখে।
আতরখালী ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার শিক্ষক হারুন অর রশিদ, মো. শহিদুল ইসলাম, আবুল কালাম ফৌজদার, প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মো, জাকির হোসেন, নৈশ প্রহরী মো. আল আমিন জানান, ১ বছর পূর্বে ২০২১ সনের ২৯ মার্চ অধ্যক্ষ এ মাদ্রাসায় যোগদান করেন। তার বিরুদ্ধে বহু অভিযোগ রয়েছে। তার বাবা মৃত হাসেম আলী সিকদার স্বাধীনতা বিরোধী একজন চিহ্নিত রাজাকার ছিলেন।
ভাণ্ডারিয়া থানার উপ-পরিদর্শক মো. হুমায়ুন কবির জানান, সোমবার ‘৯৯৯’ এর মাধ্যমে সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্হল থেকে অভিযুক্ত অধ্যক্ষকে আটক করা হয়। এছাড়া ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়েছে।  এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্হা নেয়া হচ্ছে।


আরএইচএম/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২২:১৯:১৬ ● ৭৩ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ