গলাচিপায় বাবা-ছেলেকে মারধরের অভিযোগ

প্রথম পাতা » পটুয়াখালী » গলাচিপায় বাবা-ছেলেকে মারধরের অভিযোগ
শনিবার ● ১৮ জুন ২০২২


গলাচিপায় বাবা-ছেলেকে মারধরের অভিযোগ

গলাচিপা (পটুয়াখালী) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

পটুয়াখালীর গলাচিপায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শিঙ্গাপুর প্রবাসীকে প্রাণ নাশের হুমকিসহ প্রবাসীর বাবা-ছেলেকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে এনায়েত সওদাগরের (৪২) বিরুদ্ধে। উপজেলার পানপট্টি ইউনিয়নের রতেœশ্বও গ্রামে শুক্রবার সকালে এ মারধরের ঘটনা ঘটে। আহতদেরকে ওইদিন গলাচিপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় প্রবাসী মোসা. আজমিন কাজী (৩৩) বাদি হয়ে শনিবার গলাচিপা থানায় এনায়েত সওদাগর ও তার স্ত্রী সালমা বেগমের (৩৫) বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। মারধরের শিকার হলেন ওই গ্রামের মৃত হাসেম কাজীর ছেলে সেরাজ কাজী (৬২) ও কিশোরগঞ্জ জেলার কাকন্দিয়া থানার মৃত রজব আলীর ছেলে আলিফ (১১)। মারধরকারী এনায়েত সওদাগর একই এলাকার গনি সওদাগরের ছেলে।
প্রবাসী মোসা. আজমিন কাজী জানান, গলাচিপা উপজেলার পানপট্টি ইউনিয়নের রতেœশ্বর গ্রামে শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে তার ছেলে আলিফ মাঠে বেঁধে রাখা গরু আনতে গেলে খুঁজে না পেয়ে সে পাশের এনায়েতের বাড়িতে গরুটি বাঁধা অবস্থায় দেখতে পায়। এসময় গরু আনতে গেলে এনায়েত ও তার স্ত্রী সালমা মিলে আলিফকে মারধর করে বলে যে, গরু আমাদের বাড়ির বেড়া ভেঙ্গে ও জাল ছিঁড়ে ফেলেছে। তুই গরু নিতে পারবি না। আলিফের ডাকচিৎকারে প্রবাসী আজমিনের বাবা সেরাজ কাজী ঘটনাস্থলে গেলে তাকেও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করে মারধরকারীরা। তিনি বলেন, ‘এঘটনার পর থেকে এনায়েত আমাকে বাড়ি ছাড়া করার ও প্রাণ নাশের হুমকি দিচ্ছে। আমি আমার জীবন নিয়ে এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।’
গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এমআর শওকত আনোয়ার ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এসডি/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২২:০৪:১২ ● ৩০ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ