কুয়াকাটা পৌর বিএনপির সম্মেলন ‘জিয়ার কারণে আওয়ামীলীগ নামটি তাদের দলের নেতাকর্মীরা উচ্চারণ করতে পারছে’

প্রথম পাতা » কুয়াকাটা » কুয়াকাটা পৌর বিএনপির সম্মেলন ‘জিয়ার কারণে আওয়ামীলীগ নামটি তাদের দলের নেতাকর্মীরা উচ্চারণ করতে পারছে’
মঙ্গলবার ● ৩১ মে ২০২২


কুয়াকাটা পৌর বিএনপির সম্মেলন

কুয়াকাটা সাগরকন্যা অফিস॥

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ গণতন্ত্র হত্যাকারী দল। দেশের কোথাও আজ গণতন্ত্রের চর্চা নেই। দেশের মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নেয়া হয়েছে। শেখ মুজিবুর রহমান আওয়ামীলীগের নাম পরিবর্তন করে রেখেছিলো বাংলাদেশ কৃষক শ্রমিক লীগ (বাকশাল)। বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কারনেই আজ আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা আওয়ামীলীগ নামটি উচ্চারণ করতে পারছেন। তারা কথায় কথায় উন্নয়নের কথা বলে। কলাপাড়ায় পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নামে একটি মেঘা প্রকল্পের যে কাজ করেছে তাতে কলাপাড়ার মানুষ কোনোভাবে উপকৃত হয়নি। কলাপাড়ায় বিদ্যুৎ উপাদন হচ্ছে আর এখানেই দিনে বিদ্যুৎ যায় ১২ বার। মেঘ দেখলেই বিদ্যুৎ চলে যায়। বিএনপি যেখনে দশ হাজার পাঁচশত কোটি টাকা ব্যয়ে পদ্মা সেতু করার পরিকল্পনা করেছিলো। সেখানে আওয়ামীলীগ চল্লিশ হাজার কোটি টাকা খরচ করে সাগর চুরি করেছে বলে মন্তব্য করেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এবিএম মোশাররফ হোসেন।
মঙ্গলবার (৩১ মে) বিকেল তিনটায় কুয়াকাটার পাঞ্জুপাড়ায় একটি আবাসিক হোটেলের হলরুমে কুয়াকাটা পৌর বিএনপির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। কুয়াকাটা পৌরসভায় প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত বিএনপির কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। কুয়াকাটা পৌর বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুল আজিজ মুসুল্লীর সভাপতিত্বে সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তর‌্য রাখেন, বরিশাল বিভাগের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আকন কুদ্দুুসুর রহমান, পটুয়াখালী জেলা বিএনপির আহবায়ক চুন্নু মিয়া, পটুয়াখালী জেলা বিএনপির সদস্য সচিব স্নেহাংশু সরকার, পটুয়াখালী জেলার সদস্য জাফর উজ্জমান খোকন, আলমগীর হোসেন বাচ্চু, দেলোয়ার হোসেন নান্নু, মোঃ শাহীন চৌধুরী পাশা, কলাপাড়া উপজেলা বিএনপির আহবায়ক হাজী মোঃ হুমায়ুন সিকদার প্রমুখ।
সম্মেলনে কাউন্সিলরদের প্রত্যক্ষ ভোটে আব্দুল আজিজ মুসুল্লী সভাপতি ও আলহাজ¦ মতিউর রহমানকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়েছে।

এনইউবি/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২১:১১:৩৪ ● ১৩৬ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ