চরফ্যাশনে পুলিশের গুলিতে নিহত-১, আহত-১২

প্রথম পাতা » ব্রেকিং নিউজ » চরফ্যাশনে পুলিশের গুলিতে নিহত-১, আহত-১২
সোমবার ● ২১ জুন ২০২১


চরফ্যাশনে পুলিশের গুলিতে নিহত-১, আহত-১২

চরফ্যাশন (ভোলা) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

চরফ্যাশন উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ১জন নিহত ও পুলিশের গুলিতে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছে কম পক্ষে ১২জন। সোমবার (২১ জুন) দুপুরে উপজেলার শশীভূষণ থানার হাজারীগঞ্জ ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের ১৯৫ নং চরফকিরা কো-ইড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে গুরুতর আহত ৬ জনকে চরফ্যাশন হাসপাতালে ভর্তি করলেও বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। পুলিশ এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে মেম্বার প্রার্থী ইউসুফ সিকদারের ছেলে রিয়াজ সিকদারকে আটক করেছে।
নিহত ওই ব্যক্তি ৫ নং ওয়ার্ডের বশির মিস্থির ছেলে মনির হোসেন (২৩)।
উভয় পক্ষের গুরতর আহতরা হলেন,  সহিজল ইসলামের ছেলে আলাউদ্দিন(৩৫), তাসলিমা(৩০),  লিজা(৪), ইমন(৩০), নুরনাহার(২৮), সুলতানা(৪০)রুনু বেগম কহিনুর(৪০) (জান্নাত(৩০), ছায়েরা(৬০) সহ ১২জনের খবর পাওয়া গেছে।
স্থানিয় সুত্রে জানা গেছে, ইউপি সদস্য প্রার্থী ইয়াঝিন মাঝি (ফুটবল) ও ইউসুফ শিকদারের (টিউবওয়েল ) সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। এ সময় খবর পেয়ে পুলিশ সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ফাঁকা গুলি ছোড়ে।
নিহত মনিরের স্বজনরা, আহত আলাউদ্দিন ও তার স্ত্রী জুলেখা বেগম জানান, তারা ভোট দিতে গেলে সংঘর্ষের সময় কেন্দ্রের ভেতর থেকে কে বা কারা গুলি মেরেছে তা বুঝে উঠতে পারেনি। তবে ইউছুফ সিকদারের লোকেরা এটা করতে পারে বলে তাদের সন্দেহ।
ইউছুফ সিকদারের কর্মি ও ৫ নং ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি আবু জাহের ও অপর মহিলা কর্মি রিংকু জানান, রুহুল আমিন মিঝি (সিলিংফ্যান) মার্কা ও ইয়াছিন মাঝির (ফুটবল) মার্কার লোকজন একত্র হয়ে কেন্দ্রে হামলা করে। কেন্দ্র রক্ষার্থে পুলিশ ছোরা গুলি করে। এতেই হতাহতের ঘটনা ঘটে। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ওই এলাকায় বিজিবি মোতায়েন রয়েছে।
প্রিজাইডিং অফিসার ইমাম হোসেন জানান, উভয় পক্ষ সংঘর্ষ করে কেন্দ্র দখল করতে চাইলে পুলিশ গুলি ছুরে।
শশিভুষন থানা অফিসার ইনচার্জ ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, আমাদের পুলিশ গুলি করে নি।  কে করেছে তা খতিয়ে দেখা হবে।
উপজলা নির্বাহি অফিসার মোঃ রুহুল আমিন বলেন, ঘটনা শুনেছি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নিব। নিহতের পরিবার মামলা করতে আইনগত সহতায় পাবে।

এএইচ/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২২:৪৭:২২ ● ১০৭ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ