উপজেলা পরিষদ নির্বাচনতালতলীতে সুবিধাজনক অবস্থানে মিন্টু, বেকায়দায় রেজবি

প্রথম পাতা » বরগুনা » উপজেলা পরিষদ নির্বাচনতালতলীতে সুবিধাজনক অবস্থানে মিন্টু, বেকায়দায় রেজবি
সোমবার ● ৩ জুন ২০২৪


তালতলীতে সুবিধাজনক অবস্থানে মিন্টু, বেকায়দায় রেজবি

আমতলী (বরগুনা) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

তালতলী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে শেষ মুহুর্তে প্রার্থীরা প্রচারনায় ব্যস্ত সময় পাড় করছেন। চেয়ারম্যান প্রার্থী মনিরুজ্জামান মিন্টু সুবিধাজনক অবস্থানে থাকলেও নানা অনিয়মে বেকায়দায় রয়েছেন রেজবি-উল কবির জোমাদ্দার। তবে এই দুই প্রার্থীর মধ্যেই লড়াইয়ের আভাস পাওয়া গেছে।
জানাগেছে, তালতলী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন আগামী ৫ জুন। ভোট গ্রহনের আর মাত্র একদিন বাকী আছে। শেষ মুহুর্তে প্রচারনায় ব্যস্ত চেয়ারম্যান প্রার্থী মনিরুজ্জামান মিন্টু (আনারস) , রেজবি-উল কবির জোমাদ্দার (ঘোড়া) ও মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক (মোটর সাইকেল)। তিন প্রার্থী বেশ প্রচারনা চালালেও সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন উপজেলা পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান যুবলীগ সভাপতি মনিরুজ্জামান মিন্টু। অধিকাংশ ভোটাররা তার সমর্থনে সভা সমাবেশে যোগদান করছেন বলে জানা ভোটার শামীম পাটোয়ারী, আবু রায়হান ও মিজানুর রহমান। তবে মিন্টু সুবিধাজনক অবস্থানে থাকলেও বেকায়দার রয়েছেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রেজবি-উল কবির জোমাদ্দার। তিনি গত পাঁচ বছরে আইশোটেক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র ও বিভিন্ন সরকারী প্রকল্প থেকে অবৈধভাবে বিপুল পরিমান টাকা অর্জন করেছেন। এছাড়াও এক নারীর সঙ্গে অন্তরঙ্গ ছবি ভাইরাল ও ধর্ষণ মামলা হওয়ায় বেশ বেকায়দায় রয়েছেন তিনি। এ নিয়ে ভোটারদের মাঝে বেশ ক্ষোভ রয়েছে। ভোটার রাসেল, কাইয়ুম ও শাহ আলম বলেন, চেয়ারম্যান প্রার্থী  রেজবি-উল কবির জোমাদ্দার নানা বিতর্কে বিতর্কিত। তার প্রতি মানুষের আস্থা নেই। মনিরুজ্জামান মিন্টু ও রেজবি-উল কবির জোমাদ্দার আপন মামাতো-ফুফাতো ভাই। পরস্পর ভাই হলেও তারা ভোটের ময়দানে কেউ কাউকে ছাড় দিতে নারাজ। তারপরও এই দুই ভাইয়ের মধ্যেই লড়াইয়ের আভাস পাওয়া গেছে।  অপর প্রার্থী উপজেলা বিএনপির সাবেক সদস্য সচিব মোস্তাফিজুর রহমান দুই ভাইয়ের লড়াইয়ের সুবিধা নিয়ে বৈতরনি পাড় হতে চাচ্ছেন। কিন্তু  দল থেকে তাকে বহিস্কার করায় সেই সুযোগ হাত ছাড়া হয়ে গেছে বলে মনে করেন সাধারণ ভোটার।
তালতলী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, দল আমাকে বিএনপি থেকে বহিস্কার করলেও দলের নেতা কর্মীরা আমার সঙ্গে আছেন। আশা করি আমি বিজয়ী হবো।
উপজেলা পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান ও যুবলীগ সভাপতি চেয়ারম্যান প্রার্থী মনিরুজ্জামান মিন্টু বলেন, গত ১৫ বছর নিবেদিত প্রাণ হয়ে মানুষের সুখে-দুঃখে পাশে থেকে কাজ করেছি। আশা করি মানুষ আমাকে আমার কাজের মুল্যায়ণ করবেন।  ভোটাররা আমাকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করবেন।
উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি চেয়ারম্যান প্রার্থী রেজবি-উল কবির জোমাদ্দার অবৈধভাবে টাকা উপার্জনের কথা অস্বীকার করে বলেন, গত পাঁচ বছর এলাকার উন্নয়নে গুরুত্বপুর্ণ ভুমিকা রেখেছি। মানুষ আমার কাজের মুল্যায়ণ করবেন।

 

 

 

এমএইচকে/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২৩:২৬:২৮ ● ২৫ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ