গৌরনদীতে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ২ইউপি সদস্যসহ আহত-৫

প্রথম পাতা » বরিশাল » গৌরনদীতে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ২ইউপি সদস্যসহ আহত-৫
বৃহস্পতিবার ● ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪


গৌরনদীতে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ২ইউপি সদস্যসহ আহত-৫

গৌরনদী (বরিশাল) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

বরিশালের গৌরনদীতে জমিজমা সংক্রান্ত বিােধের জেরধরে দু’গ্রুপের মধ্যে হামলা-পাল্টাহামলা ও সংঘর্ষে ২ ইউপি সদস্যসহ উভয় পক্ষেল ৫ জন আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার  বেলা ১১টার  দিকে শরিকল ইউনিয়নের বেতগর্ভ গ্রামে ও সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে শরিকল হাটের এ হামলা ও পাল্টাহামলার ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত শরিকল হাটের  দোকানদার রাতুল মৃধা, দোকানদার হেদায়েত মৃধাকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও শরিকল ইউনিয়ন পরিষদের ৩নং ওয়ার্ডের সদস্য হারুন অর রশিদ, ইউনিয়ন যুবলীগের সদস্য ও শরিকল ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের সদস্য রনি মোল্লাকে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, প্রায় সাত একর জমি নিয়ে উপজেলার বেতগর্ভ গ্রামের কাওছার বালির সঙ্গে বাহাদুরপুর গ্রামের ইউসুফ মোল্লা, মোসলেম মোল্লার দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল।  বেতগর্ভ গ্রামের ওই বিরোধপূর্ণ জমিতে ২ ইউপি সদস্যসহ ইউসুফ মোল্লা, মোসলেম মোল্লার নেতৃত্বে ১০/১২   জনে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে চাষাবাদ করতে যায়। এ সময় প্রতিপক্ষ কাওছার বালির ছেলে চুন্নু বালি  জমি চাষাবাদ করতে বাঁধা দেয়। তখন উভয় পক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে  চুন্নু বালির নেতৃত্বে ৩০/৩৫ জনে  হামলা চালিয়ে ইউপি সদস্য হারুন অর রশিদ, সহকর্মী ইউপি সদস্য রনি মোল্লাকে বেধড়ক পিটিয়ে  আহত করে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে ২ ইউপি সদস্যর সমর্থকরা জড়ো হয়ে দেশীয় ধারালো অস্ত্র নিয়ে শরিকল হাটে বাদমাগরিব (সন্ধ্যায়) দফায় দফায় মহড়া দিতে থাকে।  এ সময় ওই ২ ইউপি সদস্য সমর্থকরা শরিকল হাটে হামলা চালিয়ে দোকানদার রাতুল মৃধা ও দোকানদার হেদায়েত মৃধা, প্রতিপক্ষ চুন্নু বালিকে বেধড়ক পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। খবর পেয়ে শরিকল তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।
ইউপি সদস্য হারুন ও রনি মোল্লা অভিযোগ করে বলেন, বিগত জোট সরকারের আমলে এই চুন্নু বালী গংরা স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের অত্যাচার নির্যাতন করেছিলো। এখন আবার সদ্য আওয়ামী লীগে যোগদান করে আমাদের ওপর হামলা চালাচ্ছে।
প্রতিপক্ষ চুন্নু বালি অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, জমিজমা নিয়ে আদালতে উভয় পক্ষের তিনটি মামলা বিচারাধীন রয়েছে।   ওই ২ ইউপি সদস্য ভাড়ায় প্রতিপক্ষ ই্উসুফ, মোসলেমের পক্ষ নিয়ে আমাদের ভোগদখলীয় জমি চাষাবাদ করতে এসেছিল। তখন উত্তেজিত গ্রামবাসী ওই ২ ইউপি সদস্যকে মারপিট করেছে।
গৌরনদী মডেল থানার ওসি মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান,  জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরধরে হামলা ও পাল্টাহামলার ঘটনা ঘটেছে।  ঘটনাস্থলে পুলিশ রয়েছে। উভয় পক্ষের লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

 

এএসআর/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২২:০৪:৪৯ ● ৪৪ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ