নাজিরপুরে গৃহবধূ হত্যায় শাশুড়ি আটক

প্রথম পাতা » পিরোজপুর » নাজিরপুরে গৃহবধূ হত্যায় শাশুড়ি আটক
মঙ্গলবার ● ১৪ মার্চ ২০২৩


নাজিরপুরে গৃহবধূ হত্যায় শাশুড়ি আটক

নাজিরপুর(পিরোজপুর) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

পিরোজপুরের নাজিরপুরে লামিয়া আক্তার (১৮) নামের এক গৃহবধূকে হত্যার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে তার মেঝো খালা শাশুড়ি রেক্সনা বেগম (৪০) কে আটক করেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।  মঙ্গলবার (১৪ মার্চ) থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতারের তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
জনা  গেছে,  গত সোমবার সন্ধ্যায় জেলার সদর উপজেলার চুঙ্গাপাশা গ্রাম থেকে র‌্যাব-৮ ও নাজিরপুর থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়েছে। আটককৃত রেক্সনা ওই গ্রামের আলম খানের স্ত্রী ও নিহতের স্বামী তরিকুল ইসলামের মেঝো খালা। নাজিরপুর থানার অফিসার ইন চার্জ (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির  জানান, এর আগে গত ৬ নভেম্বর ওই গৃহবধু নিঁখোজ হয় এবং এ ঘটনায় গত ২৫ ডিসেম্বর গৃহবধু লামিয়া আক্তারের মা রাজিয়া বেগম বাদী হয়ে তার জামাতা মো. তরিকুল ইসলাম (২২) কে প্রধান আসামী করে ৭ জনের নাম উল্লেখ করে ৯ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। স্বামী তরিকুল ইসলাম উপজেলার সদর ইউনিয়নের চিথলিয়া গ্রামের মো. মিজান খানের ছেলে।  আর নিহত লামিয়া আক্তার একই গ্রামের দিন মজুর মো. নজরুল ইসলামের কন্যা। কিন্তু গত রবিবার (১২ মার্চ) রাতে লামিয়ার ঘরের সামনের সিড়ির উপর একটি চিরকুট পাওয়া যায়। ওই চিরকুটে  লেখা ‘তোমার মাইয়ার লাশ মোজাহার মোল্লার বাড়ি পশ্চিম পাশে বালুর মাঠে। ইতি-মুমিন। সব জানে মেঝো খালা’। ওই চিঠিতে দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার (১৩ মার্চ) দুপুরে থানা পুলিশ ও ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন টিম জেলার নাজিরপুর উপজেলার সদর ইউনিয়নের সাতকাছিমা গ্রামের মান্নান শিকদারের নতুন  বাড়ি তৈরীর জন্য দেয়া বালুর ভীতর থেকে একটি কঙ্কাল উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত কঙ্কালটি ওই গৃহবধুর বলে দাবী ভুক্তভোগী পরিবারের। সেই চিরকুটে উল্লেখ করা মেঝো খালা রেক্সনাকে আটক করা হয়েছে। আটককৃত খালার কাছ থেকে অনেক চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেছে। তবে পুরো তথ্য উদঘাটনের জন্য আদালতের কাছে তাকে ৫দিনের  রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে।

এএএইচ/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২১:৩৯:২৭ ● ৮৬ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ