আমতলীতে নারীকে উত্যাক্তের প্রতিবাদ করায় যুবককে কুপিয়ে জখম!

প্রথম পাতা » বরগুনা » আমতলীতে নারীকে উত্যাক্তের প্রতিবাদ করায় যুবককে কুপিয়ে জখম!
বুধবার ● ৮ মে ২০২৪


আমতলীতে নারীকে উত্যাক্তের প্রতিবাদ করায় যুবককে কুপিয়ে জখম!

আমতলী (বরগুনা) সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

এক নারীকে উত্যাক্তের প্রতিবাদ করায় কুকুয়া ইউনিয়ন পরিষদ গ্রাম আদালতের পেশকার স্বপন হাওলাদারকে সন্ত্রাসী রেজাউল ও তার সহযোগীরা কুপিয়ে জখম করেছে। স্থানীয়রা গুরুতর আহত স্বপনকে উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। ওই হাসপাতালের চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করেছে। ঘটনা ঘটেছে আমতলী উপজেলার আজিমপুর বাজারে বুধবার দুপুরে।
জানাগেছে, উপজেলার কৃষ্ণনগর গ্রামের দন্ত চিকিৎসক মোশাররফ মিয়ার ছেলে রেজাউল মিয়া তার এক প্রতিবেশী নারীকে উত্যাক্ত করতো। ওই নারী তাকে উত্যাক্তের ঘটনা কুকুয়া ইউনিয়ন পরিষদ গ্রাম আদালতের পেশকার স্বপন হাওলাদারের কাছে জানান। স্বপন হাওলাদার উত্যাক্তকারী রেজাউলকে ওই নারীকে উত্যাক্ত করতে বারন করেন। এ নিয়ে দুই জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এতে ক্ষুব্দ হন রেজাউল। এ ঘটনার জের ধরে বুধবার দুপুরে রেজাউল ও তার তিন সহযোগী স্বপনকে একা পেয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে স্বপনের বাম হাত, দুই পায়ে পাঁচটি স্থানে গুরুতর জখম হয়। তার ডাক চিৎকারে লোকজন ছুটে আসলে রেজাউল ও তার সহযোগীরা পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। ওই হাসপাতালের চিকিৎসক ডাঃ তানভির শাহারিয়ার তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করেছে।
স্থানীয়রা জানান, দন্ত চিকিৎসক মোশাররফের ছেলে রেজাউল প্রতিবেশী এক নারীকে উত্যাক্ত করতো। ওই নারী এ বিষয়টি স্বপন হাওলাদারকে জানায়। স্বপন উত্যাক্তকারী রেজাউলকে ওই নারীকে উত্যাক্ত করতে বারন করে। এ নিয়ে ওই সময় কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে রেজাউল ও তার সহযোগীরা স্বপনকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে।
আহত স্বপন বলেন, প্রতিবেশী এক নারীকে রেজাউল উত্যাক্ত করতো। আমি এর প্রতিবাদ করায় সন্ত্রাসী রেজাউল ও তার সহযোগীরা আমাকে কুপিয়েছে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।
কুকুয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ বোরহার উদ্দিন আহম্মেদ মাসুম তালুকদার বলেন, সন্ত্রাসী রেজাউল ও তার সহযোগীরা গ্রাম আদালতের পেশকার স্বপনকে কুপিয়েছে।
আমতলী থানার এসআই মোঃ সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ঘটনাস্থলে গিয়েছি। ঘটনার সঙ্গে জড়িত রেজাউল ও তার সহযোগীরা পালিয়েছে।
আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডাঃ তারভির শাহারিয়ার বলেন,গুরুতর আহত স্বপন হাওলাদারের বাম হাত ও দুই পায়ে পাঁচটি স্থানে আঘাতে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
আমতলী থানার ওসি (তদন্ত) আমির সেরনিয়াবাদ বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

 

এমএইচকে/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২১:৩৯:০৮ ● ৫২ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ