গোপালগঞ্জে হেলিকপ্টারে এলো প্রবাসী ছেলের নববধু

প্রথম পাতা » ব্রেকিং নিউজ » গোপালগঞ্জে হেলিকপ্টারে এলো প্রবাসী ছেলের নববধু
শুক্রবার ● ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪


গোপালগঞ্জে হেলিকপ্টারে এলো প্রবাসী ছেলের নববধু

গোপালগঞ্জ সাগরকন্যা প্রতিনিধি॥

বাবা মায়ের স্বপ্ন পূরণ করতে হেলিকপ্টারে চড়ে বউ আনলেন গোপালগঞ্জের ছেলে পোল্যান্ড প্রবাসী শাহীন আলম পারভেজ। শাহীন আলম পারভেজ গোপালগঞ্জ সদর উপজেলায় বনগ্রাম দক্ষিনপাড়া গ্রামের হান্নান মোল্লার ছেলে।
বৃহস্পতিবার বিকালে আত্মীয়দের নিয়ে হেলিকপ্টারে চরে বিয়ে করতে যান একই উপজেলার বেদগ্রামের বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী হাজী মো: বাবুল শেখের মেয়ে রুকাইয়া জান্নাত’কে। এ সময় হেলিকপ্টারে বরযাত্রী দেখতে এলাকায় শত শত উৎসুক নারী-পুরুষ ভিড় জমায়।
পরিবার সূত্রে জানা যায়,  শাহীন আলম পারভেজ ইউরোপীয় দেশ পোল্যান্ডের সিটিজেন ও ওই দেশের একজন রেস্টুরেন্ট ব্যাবসায়ী। শাহীনের বাবা মায়ের স্বপ্ন ছিল ছেলের বউকে হেলিকপ্টারে করে বাড়িতে আনবেন।  তাই বাবা মায়ের স্বপ্ন পুরন করতে হেলিকপ্টার করে বিয়ে করতে আসে শাহিন।
পোল্যান্ড প্রবাসী শাহিন আলম পারভেজ বলেন, এটা আমার একটা ইচ্ছে ছিল। তার থেকে বড় কথা আমার বাবা মায়ের স্বপ্ন ছিল আমাকে এবং আমার স্ত্রী যে হবে তাকে হেলিকপ্টারে করে বাড়িতে আনবেন। মা বাবার স্বপ্ন ও আমার ইচ্ছে পুরন করার জন্য এ আয়োজন। এটা করতে পেরে আমার কাছে অনেক ভালো লাগছে।
জামাতা হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করতে আসায় খুবই খুশি শাহিন আলম পারভেজের শ্বশুর হাজী মো: বাবুল শেখ। তিনি বলেন, আমি গর্বিত যে জামাই হেলিকপ্টারে চড়ে আমার মেয়েকে নিতে এসেছে। আমি খুবই আনন্দিত।
শাহিন আলম পারভেজের চাচা শশুর হানিফ শেখ বলেন, বিয়ের কনে রুকাইয়া জান্নাত আমার বড় ভাইয়ের মেয়ে। বিয়ের যাবতীয় ব্যাবস্থপনা আমি নিজ হাতে করেছি। আমার ভাতিজীকে হেলিকপ্টারে করে নিতে আশায় আমরা অনেক আনন্দ উপভোগ করেছি।

 

 

এইচবি/এমআর

বাংলাদেশ সময়: ২১:৩৬:৫৮ ● ৪৪ বার পঠিত




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

আর্কাইভ