ঢাকার রাস্তায় যুবলীগ-ছাত্রলীগ, নেই বিএনপি
হোমপেজ » রাজধানী » ঢাকার রাস্তায় যুবলীগ-ছাত্রলীগ, নেই বিএনপি


বৃহস্পতিবার, ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ঢাকার রাস্তায় যুবলীগ

ঢাকা সাগরকন্যা অফিস ॥
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়কে ঘিরে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন রাস্তায় সতর্ক অবস্থান নেয় যুবলীগ ও ছাত্রলীগ। এ সময় দলীয় কার্যালয় নয়া পল্টন বা বিএনপি চেয়ারপাসনের বাসভবন ও রাজনৈতিক কার্যালয় গুলশানসহ রাজধানীর কোথাওই রাজপথে বিএনপি নেতাকর্মীদের দেখা যায়নি। তবে গুলশানের বাসভবন থেকে চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আদালতের পথে রওনা দেওয়ার পর সাতরাস্তা এলাকায় পৌঁছালে ছাত্রদল, বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা মিছিল করে এসে বহরের সঙ্গে যুক্ত হয়। আর দলের নয়া পল্টনের কার্যালয়ে কিছু নেতাকর্মী উপস্থিত থাকলেও সেখানকার প্রধান ফটক ছিল তালাবদ্ধ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, হাইকোর্ট, জাতীয় প্রেস ক্লাব, বঙ্গবন্ধু এভিনিউ, মতিঝিল, ফকিরাপুল ও পল্টন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, যুবলীগের কর্মীর মোড়ে মোড়ে অবস্থান নিয়েছেন। একইসঙ্গে বিভিন্ন এলাকায় মোটরসাইকেলে মহড়া দিতে দেখা গেছে তাদের।
অন্যদিকে, ছাত্রদল যেন কোনও ধরনের অস্থিতিশীলতা তৈরি করতে না পারে, সে জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকায় অবস্থান নিয়েছে ছাত্রলীগ।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতা এস এম জাকির হোসাইনের নেতৃত্বে বিভিন্ন হলের নেতাকর্মীরা টিএসসি এলাকায় জয় বাংলা স্লোগান দিচ্ছেন।
অবস্থানের বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোতাহের হোসেন প্রিন্সবলেন, ‘ক্যাম্পাসের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে আমরা এখানে (টিএসসি) অবস্থান নিয়েছি। ক্যাম্পাসে কোনও ধরনের নাশকতা করার চেষ্টা করলে তা প্রতিহত করা হবে।’
এরই মধ্যে বিএনপির আইনজীবীদের আদালত এলাকা থেকে বের হতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ করা হয়েছে। এ সময় আদালতের বাইরের এলাকা থেকে দু’জনকে সন্দেহজনক অবস্থায় ঘোরাফেরা করায় আটক করা হয়েছে।
সকালে নয়া পল্টনে বিএনপির কার্যালয়ে গিয়েও দলের শীর্ষ নেতাদের মধ্যে রুহুল কবির রিজভী ও মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল ছাড়া তেমন কাউকে দেখা যায়নি। এ সময় কার্যালয়ের সামনে বিপুল পরিমাণ পুলিশ মোতায়েন ছিল। গণমাধ্যমকর্মীরাও এ সময় উপস্থিত ছিলেন। কোথাও বিএনপির কর্মীদের না থাকা এবং আওয়ামী লীগ কর্মীদের অবস্থান বিষয়ে বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানীবলেন, ‘এটাই হচ্ছে আওয়ামী লীগের চরিত্র। তারা পুলিশ প্রশাসনের সহায়তায় মাঠে নৈরাজ্য তৈরি করছে, আর দায় চাপানোর চেষ্টা করে বিএনপির ওপর। আসলে তারা একদলীয় নির্বাচনের জন্য এই নৈরাজ্য সৃষ্টি করছে।’
এ্যানী বলেন, ‘দেশের মানুষ অতীতেও তাদের এ ধরনের কর্মকা-কে সমর্থন করেনি, আগামীতেও সমর্থন করবে না। জনতার বিজয় একদিন হবেই।’

এফএন/এনইউবি


বাংলাদেশ সময়: ০২:৫৫:১৬ পিএম | ১১৩ বার পঠিত


পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

পুরনো খবর দেখতে:



---

আরো পড়ুন...