মগবাজারে ছাত্রদল-ছাত্রলীগ সংঘর্ষ, কাকরাইলে মোটরসাইকেলে আগুন
হোমপেজ » দুর্ঘটনা-সংঘর্ষ » মগবাজারে ছাত্রদল-ছাত্রলীগ সংঘর্ষ, কাকরাইলে মোটরসাইকেলে আগুন


বৃহস্পতিবার, ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ছাত্রদল-ছাত্রলীগ সংঘর্ষ

ঢাকা সাগরকন্যা অফিস ॥
রাজধানীর মগবাজারে ছাত্রলীগ ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে থাকা ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের অভিযোগ, মগবাজার মোড়ে তাদের লক্ষ্য করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ইটপাটকেল ছুড়ে মারে। এ সময় সেখানে দায়িত্বে থাকা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কোনও ব্যবস্থা নেননি।
খালেদা জিয়ার সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ৩০টির বেশি গাড়ি ছিলো। তবে খালেদার নিরাপত্তায় সিএসএফ (চেয়ারপারসন’স সিকিউরিটি ফোর্স) এর কাউকে দেখা যায়নি। পোশাকধারী সদস্যরা ছাড়াও সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। গাড়িবহর সাতরাস্তা পর্যন্ত আসার পর ছাত্রদল, বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা মিছিল করে এসে বহরের সঙ্গে যুক্ত হয়। তবে পুলিশ এ সময় তাদের কোনও ধরনের বাধা দেয়নি।
গাড়িবহর মগবাজার হলি ফ্যামিলি হাসপাতালের কাছাকাছি পৌঁছালে বিএনপির কর্মীদের মধ্য থেকে সহিংসতা তৈরির চেষ্টা করতে দেখা যায়। মগবাজারে ছাত্রদলের কর্মীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়।
এছাড়া, বিএনপির বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা প্রধান বিচারপতির বাসভবনের সামনে একটি এবং জনস্বাস্থ্য অধিদফতরের কার্যালয়ের সামনে আরেকটি মোটরসাইকেলে আগুন ঘরিয়ে দেয়। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়িবহর বকশীবাজারের অস্থায়ী বিশেষ আদালতের দিকে যাওয়ার পথে কাকরাইল মোড় পার হওয়ার সময় বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
এ সময় বিএনপির নেতাকর্মীরা কাকরাইল মোড়ে ট্রাফিক পুলিশ বক্সেও ভাঙচুর চালান। ঘটনাস্থলে নেতা-কর্মীদের সঙ্গে কয়েক দফায় পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কয়েক রাউন্ড টিয়ারশেল ও ফাঁকা গুলি ছুড়েছে পুলিশ।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, খালেদার গাড়িবহর কাকরাইলের কাছ দিয়ে রমনা এলাকা পার হওয়ার সময় বিএনপি নেতাকর্মীরা বহরে যোগ দিতে গেলে বাধা দেয় পুলিশ। এ সময় তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছোড়ে। জবাবে জলকামান নিক্ষেপ ও ফাঁকা গুলি ছোড়ে পুলিশও।

এফএন/এনইউবি


বাংলাদেশ সময়: ০২:৫৫:১১ পিএম | ৮৭ বার পঠিত


পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

পুরনো খবর দেখতে:



---

আরো পড়ুন...