দশমিনায় হারিয়ে যেতে বসেছে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলা
হোমপেজ » খেলা » দশমিনায় হারিয়ে যেতে বসেছে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলা


সোমবার, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

বাংলার ঐতিহ্যবাহী কাবাডি খেলা

সঞ্জয় ব্যানার্জী, দশমিনা সাগরকন্যা প্রতিনিধি ॥
পটুয়াখালীর দশমিনা থেকে  গ্রামীণ খেলা বিলুপ্ত হতে হতে আজ তার অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়াই কঠিন হয়ে পড়েছে। খোদ অজপাড়াগাঁয়েও সবচেয়ে বেশি প্রচলিত কাবাডি, দাঁড়িয়াবান্ধা, গোল্লাছুট, বৌচি, কানামাছি প্রভৃতি গ্রামীণ খেলার এখন প্রচলন নেই। গ্রামবাংলার খেলাধুলার মধ্যে যেসব খেলা হারিয়ে গেছে তার মধ্যে হা-ডু-ডু, দাঁড়িয়াবান্ধা, মন্দুরুজ, গাদন, খো-খো, ডাংগুলি, গোল্লাছুট, গোশত তোলা, চিক্কা, এ্যাঙ্গো এ্যাঙ্গো, কুতকুত, ল্যাংচা, কিং কিং খেলা, বোমবাস্টিং, হাড়িভাঙা, বুদ্ধিমন্তর, চাঁ খেলা, বৌচি, কাঠিছোঁয়া, দড়ি লাফানো, বরফ পানি, দড়ি টানাটানি, চেয়ার সিটিং, রুমাল চুরি, চোখ বুঝাবুঝি, কানামাছি, ওপেন্টি বায়েস্কোপ, নৌকাবাইচ, ঘোড়াদৌড়, এলাটিং বেলাটিং, আগডুম বাগডুম, ইচিং বিচিং, ইকড়ি মিকড়ি, ঝুম ঝুমা ঝুম, নোনতা বলরে, কপাল টোকা, বউরানী, ছক্কা, ব্যাঙ্গের মাথা, লাঠিখেলা, বলীখেলা, আইচ্চা ভাঙ্গা, এক্কাদোক্কা, কুৎ কুৎ, মইলা, রাম সাম যদু মদু, চোর ডাকাত, মার্বেল
নতুন প্রজন্মের কাছে এগুলো এখন শুধুই গল্প।
আবার নাম শুনে অনেকেই হাসে। গ্রামের এসব খেলাগুলোর মধ্যে হা-ডু-ডু, দাঁড়িয়াবান্ধা, গোল্লাছুট, বৌচি, ডাংগুলি ছিল সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। এসব খেলা চলাকালে শতশত মানুষের ঢল নামতো খেলা প্রাঙ্গণে। কিন্তু এখন গ্রামে ঐতিহ্যবাহী ঘোড়ার দৌড়িনিয়ে বর্তমান প্রজন্মের ছেলে মেয়েদের মধ্যে ক্যেতুহল থাকলেও তারও দেখা মিলছে না।

এনইউবি/এনবি


বাংলাদেশ সময়: ০৫:২১:৪৫ পিএম | ৪৭ বার পঠিত


পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

পুরনো খবর দেখতে:



---

আরো পড়ুন...